পরি মনিকে নিয়ে যা বললেন জায়েদ খান

শিল্পী সমিতি শুরু থেকেই পরীমণির পাশে ছিলো এবং সবসময় থাকবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। সহযোগিতা চেয়েও পাননি বলে পরীমণি যে অভিযোগ তুলেছেন তা অস্বীকার করে তিনি বলেন, ও (পরীমণি) বুঝতে পারেনি। বাচ্চা মানুষ, ভুল বুঝেছে।

সোমবার (১৪ জুন) বাংলাভিশন ডিজিটালকে জায়েদ খান বলেন, আমরা শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে হারুন ((ঢাকা মহানগর ডিবির উত্তর বিভাগের যুগ্ম-কমিশনার হারুন অর রশীদ) ভাইর সংগে বারবার যোগাযোগ করেছি।

মা”মলাটি কিন্তু হয়েছে সাভারে, হারুন ভাইর অধীনে না। আমি এবং মিশা ভাই উনাকে অনুরোধ করেছি সহায়তা করতে। তিনি আমাদের অনুরোধ রেখেছেন। দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছেন।

জায়েদ খান বলেন, এখন পরীমণি যদি আ”ইনি সহায়তা চায়, আমাদের শিল্পী সমিতির আইন উপদেষ্টা আছেন। এছাড়া যদি আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন হয় সেটাও শিল্পী সিমিতির পক্ষ থেকে করা হবে।

সহায়তা চেয়েও পাননি বলে পরীমণি’র অ”ভি”যোগের বিষয়ে জায়েদ খান বলেন, ও বুঝতে পারেনি। বাচ্চা মানুষ তো, একা কী করবে? সাম”লাতে পারেনি। এতে ওর দো”ষ ধর”ছি না।

ও আমার কাছে এসেছিলো। আমি বলেছিলাম, তুমি শিল্পী স’মিতির কা’ছে কী চাও? সে বলেছিলো, তো”মরা আমা’কে আইজিপি’র সং’গে দে”খা’ করিয়ে দাও। এটা শিল্পী সমিতির কাছে আমার চাওয়া।

তিনি বলেন, ও বৃহ”স্পতিবার রাতে এ’সেছি’লো, আ’মি বললাম শুক্র-শ”নিবার গেলে রবি’বার আমরা এ’কটা চিঠি লি”খবো। তুমিও এক’টা চিঠি দিও। আ’মি টি”ভিতে দেখলাম আই’জিপি ‘ম’হোদয় রা’জশা’হীতে আ’ছেন। আমি বললাম, উ”নি রা’জশা’হী’তে আছেন। ঢা’কায় ফি’রলে যো’গা’যো’গ করবো।

এরপর হ’য়তো ও ভুল বু’ঝেছে। ভে’বেছে, জা’য়েদ খান তাঁ’কে ঘো”রাচ্ছে। যা’ই হোক, ও বা”চ্চা মানুষ। আ”মার হাত ধ”রেই তো সিনেমায় এসেছে। ওর প্রথম নায়’কই তো আমি। ও ভুল বু”ঝেছে। তারপরেও আ”মরা ওর সং’গে আছি। সে হয়’তো আ”বেগে, ক”ষ্টে অ’নেক’কি’ছু বলেছে। আম’রা কো’নোভাবেই ওর পাশ থেকে সরে যাইনি।

জায়েদ খান বলেন, সাংবাদিক সম্মেলনের আগেও ফোন করে জিজ্ঞাসা করেছিলাম যেতে হবে কি না। ও বলেছে, যেতে হবে না। ওর চাওয়া ছিলো একটাই- আইজিপি মহোদয়ের সংগে দেখা করা। কিন্তু আইজিপি’র সংগে তো চাইলেই দেখা করা যায় না।

একটা প্রটোকলের ব্যাপার আছে। সে এখনও শিল্পী সমিতিকে লিখিত কিছু দেয়নি উল্লেখ করে জায়েদ খান বলেন, আসলে লিখিত বড় কথা না। শিল্পী বিপদে পড়েছে শিল্পী সিমিতি তাঁর পাশে থাকবে।

তিনি বলেন, যেহেতু মামলা হয়ে গেছে এবং আসামি গ্রেফতার হয়েছে, এখন তো আর আন্দোলন সংগ্রামের কিছু নেই। আন্দোলনে আর কিছু হবে না। আইন নিজের গতিতেই চলবে। আমরা আইনের প্রতি শ্র’দ্ধাশীল।

রাতে পরীমণির বাসায় যাবেন জানিয়ে জায়েদ খান বলেন, ওর সংগে কথা বলবো। মানসিকভাবে ও ভালো নেই। ও যেভাবে চাইবে শিল্পী সমিতি সেভাবেই ওর পাশে থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.