রানু মন্ডল এর জন্য কেঁদে ভাসালেন হিমেশ সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়ের গতিতে ভাইরাল সেই খবর

সোশ্যাল মিডিয়ার গুনে প্রকাশ্যে আসার রানু মন্ডলের কথা প্রায় সকলেরই মনে রয়েছে। খুব সহজ ছিল না রানাঘাট স্টেশন থেকে বলিউডের সংগীতশিল্পীর যাত্রাপথ টি। কিন্তু তাতেও তিনি অসাধারণ সাফল্য অর্জন করেছেন।

হয়তো নিজের অহংকারবশত আজকে তিনি অনেকটাই অন্ধকারে হারিয়ে গিয়েছেন, তবে তার গাওয়া গানগুলি কিন্তু এখনো অবধি কিন্তু দর্শকদের মন জয় করে রেখেছে।

মেয়ের দ্বারা পরিতক্ত রানু মন্ডল স্টেশনে দিন কাটালেও নিজের সংগীতের মাধ্যমে পরিচিতি লাভ করেন। অতীন্দ্র চক্রবর্তী নামক এক 24 বছর বয়সী ইঞ্জিনিয়ার রানুর গানকে রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়ায় মানুষের সামনে উন্মুক্ত করে দেন।

তার গানের গলা মুগ্ধতা লাভ করতে করতে বলিউড অব্দি পৌঁছে যায়।তারপর হিমেশের পরিচালনায় রানুর গলায় রেকর্ড করা নতুন গান সবার কাছে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।গানটি প্রকাশ্যে আসার পর অনেক অনুষ্ঠানেই শুনতে পাওয়া যায় প্রতিনিয়ত।

নিজের অস্বাভাবিক মন্তব্যের জন্য এরপর রানু মন্ডল বিতর্কেও জড়ান।ঠিক যতটা সাহায্য তাকে করেছিলেন অতীন্দ্র চক্রবর্তী ঠিক ততটাই সাহায্যের হাত তিনি পেয়েছেন হিমেশ রেশমিয়ার কাছ থেকে।

তেরি মেরি পর হিমেশের সাথে আরো একটি গান রেকর্ড করছেন তিনি। শুধুমাত্র তাই নয়,হিমেশ যে রানুর জন্য কতটা আবেগঘন হয়েছিলেন তা সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিওর মাধ্যমেই বোঝা যাচ্ছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে সংবাদ মাধ্যমের সামনে রানুর লড়াই এর কথা বলতে বলতে আবেগপ্রবণ হয়ে উঠেছেন হিমেশ। তিনি নিজেও প্রতিষ্ঠিত হতে যথেষ্ট লড়াই করেছেন তাই যখন রানু মন্ডলের কথা শোনেন তিনি তখনই তার চোখের জল থামিয়ে রাখতে পারেন নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.