মডেল পিয়াসা ও মৌকে নিয়ে মুখ খুললেন শহীদুজ্জামান সেলিম

রাজধানীর বারিধারার বাসায় গত রোববার রাতে অ’ভিযান চালিয়ে মা’দকদ্রব্যসহ আ’লোচিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসাকে আ’ট’ক করা হয়। এরপর গভীর রাতে মোহাম্ম’দপুরে একটি বাসা থেকে ইয়াবাসহ মডেল মৌ আক্তারকে আ’ট’ক করে ডিবি।

আ’ট’কের পর তাদের নানা অ’পকর্ম বেরিয়ে আসছে। তাদের বিষয়ে মুখ খুলেছেন জনপ্রিয় অ’ভিনয়শিল্পী ও অ’ভিনয় শিল্পী সংঘের সভাপতি শহীদুজ্জামান সেলিম।

তিনি বলেন, ওরা কিসের মডেল! কিসের অ’ভিনয়শিল্পী। এত বছরের অ’ভিনয়জীবন, কারও নামই তো শুনলাম না। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সংবাদমাধ্যমকে অনুরোধ—কাউকে মডেল ও অ’ভিনয়শিল্পী হিসেবে

প্রচারের আগে অবশ্যই খতিয়ে দেখবেন। সমাজে এই ধরনের অ’পকর্মের কারণে সেনসেশন তৈরি হয়। দেশ–বিদেশের মানুষের কাছে সত্যিকারের শিল্পী ও মডেল স’ম্পর্কে নেতিবাচক ভাবমূর্তি হয়।

শহীদুজ্জামান সেলিম আরও বলেন, ‘এদের আম’রা একদমই চিনি না। এরা কী’ কাজ করেছে, কখনো সেটাও জানি না। এখানে আমাদের একটা বক্তব্য, সব শিল্পীই শিল্পী নয়, সব মডেলই মডেল নয়।

‘একটা প্রবণতা আম’রা ইদানিং দেখছি, একটা ছে’লে বা মে’য়ে কোথাও অ’প’রাধ করে নিজেদের মডেল বা অ’ভিনয়শিল্পী দাবি করছে। যারা গ্রে’ফতার করেন, তারাও মনে হয়, এসব পরিচয়ে গ্রে’প্তার করতে পুলকিত হন।

মডেল অমুক ধ’রা পড়েছে, সংবাদমাধ্যমেও সেভাবে লেখা হয়। এভাবে লেখা বা প্রচারের কারণে সত্যিকারের শিল্পীরা বিব্রত হন। সমাজের মানুষের কাছে তাদের নেতিবাচক ধারণা তৈরি হয়। অসম্মান করা হয়!’

তিনি বলেন, তার পরিচয় কী’? মডেল। সে কি মডেলিং করেছে, কেউ কিন্তু জানি না। তার পরিচয় অ’ভিনয়শিল্পী, কিন্তু সে কিসে অ’ভিনয় করেছে, কেউ বলতে পারবে না। একজন মানুষকে হুটহাট অ’ভিনয়শিল্পী বা মডেল বলাটা সত্যিকারের শিল্পী ও মডেলদের অ’পমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.