দুর্দান্ত নেচে স্টেজ কাঁপাল ৩ বছরের খুদে মেয়ে, নেটদুনিয়ায় তুমুল ভাইরাল ভিডিও

এসেল ভিশন প্রডাকশনসের প্রযোজনায় জনপ্রিয় ডান্স রিয়েলিটি শো হলো “ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স”। সারাদেশের বিভিন্ন অংশের নৃত্য শিল্পীদের আগমন ঘটে ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স এর মঞ্চে। বিশেষত শিশুদের জন্য “ডিআইডি লি’ল মাস্টারস” চালু হয়েছে বেশ কয়েক বছর আগে থেকেই।

ডিআইডি লি’ল মাস্টারস থার্ড সিজনের এক পারফরম্যান্স সাম্প্রতিক সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হয়েছে। এক ছোট্ট শিশুর পারফরম্যান্স দেখে রীতিমত হতবাক হয়ে গিয়েছে বিচারকেরা। নাম তার মাহি। বয়স খুব বেশি হলে তিন থেকে চার বছর।

মাত্র এতোটুকু বয়সেই সে অংশগ্রহণ করেছে ডিআইডি লি’ল মাস্টারস থার্ড সিজনে। “রামলীলা” সিনেমার “ঢোল বাজে” গানে নেচে জনপ্রিয়তা অর্জন করে ভাইরাল হয়েছে ছোট্ট মাহির এই নাচ। মিঠুন চক্রবর্তী ছিলেন অনুষ্ঠানটির গ্র্যান্ডমাস্টার।

অনুষ্ঠানের বিচারকরা হলেন কোরিওগ্রাফার গীতা কাপুর, আহমদ খান এবং মুদাসসার খান। তাঁরা সকলেই এই ছোট্ট শিশুটির নাচের ভঙ্গি দেখে উচ্ছ্বসিত। একই সঙ্গে তার এক্সপ্রেশন ছিল বলিউড অভিনেত্রীদের হার মানিয়ে দেবার মত।

ছোট্ট মাহির অসাধারন নাচের ভঙ্গিমায় মুগ্ধ হয়ে বিচারক আসন থেকে উঠে আসেন আহমদ খান এবং মুদাসার খান। তারা বলেন ছোট্ট শিশুটি যেন তাদের মাথায় হাত রেখে আশীর্বাদ করে। ছোট্ট মাহির নাচের প্রশংসা করার আগে গীতা কাপুর মাহিকে জিজ্ঞাসা করেন, সে কেমন আছে, ডান্স পারফর্ম করেই বা কেমন লেগেছে এসব কিছু।

প্রতিটি কথার একদম সুন্দর ভাবে উত্তর দিয়েছে ছোট্ট মাহি। এরপর গীতা কাপুর তাকে জিজ্ঞাসা করেন যে, সে কি কোরিওগ্রাফার মাস্টার আহমদকে কিছু বলতে চাই। স্টেজ থেকে দৌড়ে এসে মাস্টার আহমদের কোলে উঠে তার গালে চুমু খায় ছোট্ট মাহি।

বিচারক আসনে বসে থাকা সকলেই ছোট্ট শিশুটিকে একবারে আপন করে নেন। জড়িয়ে ধরে আদর করেন সকলেই। এরপর গীতা কাপুর তাকে জিজ্ঞাসা করেন যে তার সাথে আজ কে কে এসেছে। এরপর শিশুটি জানায় যে তার মা এবং বাবা এসেছে।

সঙ্গে সঙ্গে তার মা এবং বাবাকে স্টেজে ডেকে নেওয়ার জন্য আহ্বান জানান বিচারকেরা। এরপর ছোট্ট মাহিকে একটি স্যাসে পরিয়ে দেওয়ার পর মাস্টার আহমদ তাঁকে কোলে করে নিয়ে স্টেজে উঠে যান। মাহি, তার মা বাবা এবং মাস্টার আহমদ একসাথে স্টেজে নাচতে শুরু করেন।

ছোট্ট শিশুটির অসাধারণ ডান্স পারফরম্যান্স দেখে তাজ্জব বনে গিয়েছিলেন বিচারকেরা। তারা হয়তো মনে মনে এটাই ভাবছিলেন, বছর তিনেকের এইটুকু একটা শিশু কিভাবে এত সুন্দর ডান্স পারফর্ম করতে পারে। কার্যত হতবাক হয়ে ছোট্ট শিশুটির ডান্স পারফর্ম দেখছিলেন তারা।

ছোট্ট মাহির ডান্স পারফর্ম দেখে খুশি তার বাবা-মা। দর্শক আসনেও হাততালির বন্যা বয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় বর্তমানে এই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। “ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স” এর ইউটিউব চ্যানেল থেকে সাম্প্রতিক পোস্ট করা হয়েছে এই ভিডিও।

ইতিমধ্যে ভিডিওটি ব্যাপক ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। বছর সাতেক আগে পোস্ট করা এই ভিডিওটির জনপ্রিয়তা বর্তমানে তুঙ্গে। এখন হয়তো শিশুটি অনেকটাই বড় হয়ে গিয়েছে। সে নিজেও তার এই ডান্স পারফর্ম আরেকবার মনে করার জন্য দেখে নিতেই পারে।

ইতিমধ্যেই বর্তমানে এই ভিডিওটির দর্শক সংখ্যা ৩৮১ মিলিয়ন। দেড় মিলিয়ন লাইক পড়েছে ভিডিওটিতে। কমেন্ট সেকশনে সকলেই ছোট্ট মাহির নাচের প্রশংসা করেছেন আবারো। কথায় বলে, পুরনো চাল ভাতে বাড়ে। এটা যেনো তারই এক ঝলক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.