যে কারনে সুযোগ পেলে প্রথম স্বামীর সঙ্গে ফিরতে চান শ্রাবন্তী

টালিউডের তারকা অভিনেত্রী শ্রাবন্তী পর্দায় সফল হলেও সংসারজীবন একদমই ভালো যাচ্ছে না। একে একে তিনটি বিয়ে করেছেন, তবুও ব্যর্থ তিনি। সবশেষ দাম্পত্যেও সুখের মুখ দেখেননি এই অভিনেত্রী।

দীর্ঘদিন ধরেই আলাদা থাকছেন তারা। তাদের জটিলতা আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। এদিকে প্রথম স্বামীর সঙ্গে এই অভিনেত্রীকে নিয়ে নতুন করে আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

২০০৩ সালে পরিচালক রাজীবের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শ্রাবন্তী। এই দম্পতির অভিমন্যু নামে এক পুত্রসন্তান রয়েছে। রাজীবের সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর থেকে শ্রাবন্তীর সঙ্গেই থাকেন অভিমন্যু ওরফে ঝিনুক।

চলতি বছরই আইসিএসই পাস করেছেন অভিমন্যু। ছেলে দারুণ নম্বর নিয়ে পাশ করায় স্বভাবতই গর্বিত অভিনেত্রী। পড়াশোনা শেষ করে বাবা-মায়ের মতো ফিল্ম দুনিয়াতেই আসতে চান ছেলে। টাইমস অব ইন্ডিয়াকে শ্রাবন্তী বলেন—‘ঝিনুক পড়াশোনা শেষ করে টলিউডে আসতে চায়।

তবে অভিনয় নয়, বাবা রাজীবের মতো সেও পরিচালনা করতে চায়। ফিল্ম নিয়ে উচ্চতর ডিগ্রি নিতে চায় অভিমন্যু। আর আমার এসব বিষয়ে পুরোপুরি সম্মতি রয়েছে। ঝিনুককে বলে রেখেছি, তোর পরিচালনায় আমি অভিনয় করব।’

এ আলোচনায় প্রাক্তন স্বামী রাজীব বিশ্বাসের কথাও উঠে আসে। এ সময় রাজীবের প্রশংসা করেন শ্রাবন্তী। তার ভাষায়—‘‘স্বামী হিসেবে হয়তো আমার সঙ্গে মতানৈক্য হয়েছে, কিন্তু চিত্রপরিচালক হিসেবে রাজীব অত্যন্ত ভালো কাজ করছে।

এমনকি, আমাদের বিচ্ছেদ চলাকালীন ‘বিন্দাস’ ও ‘মজনু’ সিনেমায় অভিনয় করেছি। সুযোগ পেলে ফের ওর সঙ্গে কাজ করতে চাই।’’

রাজীবের সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর প্রেমিক কৃষাণ ভিরাজকে বিয়ে করেন শ্রাবন্তী। ২০১৬ সালের জুলাইয়ে শ্রাবন্তী ও কৃষাণের বিয়ে হয়। কিন্তু বছর পেরুতেই বিবাহবিচ্ছেদের কথা জানান শ্রাবন্তী।

২০১৯ সালে রোশানের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। এ সম্পর্কেও ভালো নেই তিনি। কারণ দীর্ঘ দিন ধরে আলাদা থাকছেন তারা। এ জটিলতা গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.