বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে নিয়মিত চলছে কিন্ডারগার্টেন স্কুলের ক্লাস

ঠাকুরগাঁওয়ে আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে নিয়মিত চলছে এক কিন্ডারগার্টেন স্কুল। ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার গড়েয়া গোপালপুর ফুটানি বাজারের পশ্চিম পাশে সরকারি বিধিনিষেধ তোয়াক্কা না করে সান লাইট কিন্ডার গার্টেনটি দীর্ঘ দিন ধরে

নিয়মিত ক্লাস পরিচালনা করে আসছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। প্রতিষ্ঠানে একজন শিক্ষককে জিঞ্জাসাবাদ করলে তিনি বলেন, আপনারাতো জানেন কিন্ডারগার্টেন গুলোর অবস্থা।

প্রতি বছর জায়গার মালিককে দশ হাজার টাকা ভাড়া দিতে হয় এবং স্কুলের শিক্ষকদের বেতন দিতে হয়। এসময় তিনি সাংবাদিকদের ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান এই সান লাইট স্কুলটি করোনা চলাকালীন তৈরী হয়েছে। সরকারি কোন নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে দীর্ঘ দিন থেকে গোপনে লেখাপড়া চালিয়ে আসছে।

প্রতিষ্ঠানটি গড়েয়া হাট থেকে উত্তরে প্রায় দুই কিলো মিটার দুরে হওয়ায় প্রশাসনের নজরে তেমন একটা পড়েনা। আর সেই সুযোগ টি কাজে লাগিয়ে তারা দীর্ঘদিন থেকে বিনা বাধায় প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছেন।

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার অব্দুল্লাহ আল মামুনে কে অবগত করলে তিনি ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলে জানান। এ বিষয়ে অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো তাদের মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন,

সরকারি বিধি নিষেধ অনুযায়ী আমরা দীর্ঘ দিন যাবৎ শত কষ্টের মাঝেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখেছি। প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার পরও প্রতিমাসে প্রায় দশ হাজার টাকা ঘর ভাড়া দিয়ে আসছি কিন্তু কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা রেখে দিব্বি ক্লাস চালিয়ে যাচ্ছে

এমন বিষয় কোন ক্রমেই মেনে নেওয়া যায় না। যেখানে শারীরিক দুরুত্বের কোন বালাই নেই সেখানে কোন শিক্ষার্থী যদি করোনা আক্রান্ত হয় তবে এর দায় ভার কে নিবে?

Leave a Reply

Your email address will not be published.