স্বর্ণের বাজারে ব্যাপক অস্থিরতা দেখেনিন সর্বশেষ বাজার মূল্য

বিশ্ব বাজারে আবারও বেড়েছে স্বর্ণের দাম। চলতি সপ্তাহে একাধিকবার স্বর্ণের দাম উঠা-নামা করলেও সপ্তাহ শেষে তা উর্ধ্বগতির দিকেই রয়েছে।

গোটা বিশ্বে কোভিড পরিস্থিতির অবনতি হবার পর থেকেই কখনও স্বর্ণের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে আবার কখনও সেটা ব্যাপক হারে কমতে দেখা গিয়েছে।

এছাড়া মাঝখানে আমেরিকার নির্বাচন ও তেলের দরপতনেরও ব্যাপক প্রভাব ফেলেছিলো সোনার বাজারে। সবকিছু ছাপিয়ে কিছুটা স্থিতিশিল বাজার থাকলেও চলতি সপ্তাহে আবারও অস্থিরতা দেখা গেছে স্বর্ণের বিশ্ব বাজারে।

তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত সোমবার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে প্রতি আউন্স সোনার মূল্য ছিলো ১৭৬৩ ডলার। পরবর্তিতে ব্যপক দরপতন হলেও সপ্তাহের শেষ দিনে আবারও ঘুরে দাঁড়ায় সোনার দর।

এক পর্যায়ে প্রতি আউন্স সোনার দল ১৬৯৯ ডলারে নেমে গেলেও পরে তা বেড়ে দাঁড়ায় ১৭৫১ ডলারে। সপ্তাহের শেষ দিনে শুক্রবার বিশ্ববাজারে সোনার দর আরও বৃদ্ধি পায় ১ দশমিক ৫৪ শতাংশ।

সার্বিক হিসেবে যা গোটা সপ্তাহের জন্য বৃদ্ধি পেয়েছে দশমিক ৯৫ শতাংশ। ফলে প্রতি আউন্স সোনার মূল্য গিয়ে ঠেকেছে ১ হাজার ৭৭৯ দশমিক ৪৫ ডলারে।

এদিকে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামের উঠানামা থাকায় বাংলাদেশে গত মে মাসে স্বর্নের মূল্য বৃদ্ধি করা হয় ৪ হাজার ৩৭৪ টাকা। পরবর্তী সময়ে বিশ্ববাজারে দাম কমলে বাংলাদেশেও কয়েক দফা দাম কমানো হয়েছিলো।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি সর্বশেষ সোনার মূল্য কমিয়েছে গত ১৯ জুন। যেখানে প্রতি ভরিতে ১ হাজার ৫১৬ টাকা কমানোর ঘোষণা দেয়া হয়।

২০ জুন থকে কার্যকর হওয়া মূল্য অনুযায়ী দেশের বাজারে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ৭১ হাজার ৯৬৭ টাকা।

এছাড়া ২১ ক্যারেটের স্বর্ণ ৬৮ হাজার ৮১৭, ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ ৬০ হাজার ৬৮ ও সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৪৯ হাজার ৫৪৬ টাকা। বর্তমানে এ দামেই দেশের বাজারে স্বর্ণ বিক্রি হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *