সন্তান জন্মের আগের দিনও শুটিং করেছিলেন তানিয়া আহমেদ

কাজকে ভালোবাসেন অভিনেত্রী তানিয়া আহমেদ। বিশেষ করে কথা দিয়ে কথা না রাখতে পারলে অস্থিরতায় ভোগেন তিনি। এ কারণেই সন্তান জন্মের আগের দিনও ক্যামেরার সামনে অভিনয় করেছেন তিনি।

এমনকি ছেলে শ্রেয়াস ভূমিষ্ঠ হবার ৪০ দিন পরও শুটিং করেছেন তিনি।সন্তানরা বড় হয়ে কি হবেন, এই ভাবনা ছেলেদের ওপরই ছেড়ে দিতে চান তানিয়া। সম্প্রতি আমেরিকা থেকে ফিরে এসে মাছরাঙা টেলিভিশনের ঈদের বিশেষ ‘রাঙা সকাল’-এ সে ভাবনার কথাই শেয়ার করলেন তিনি।

খুব শিগগীরই আবারো আমেরিকায় উড়াল দেবেন তিনি। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেত্রীর অভিনয় ক্যারিয়ারের রজত জয়ন্তী পূর্ণ হয়েছে গত বছর।

১৯৯৫ সালের বড় দিনে প্রচার হয়েছিল তানিয়া আহমেদ অভিনীত, ফারিয়া হোসেন পরিচালিত নাটক ‘সম্পর্ক’। তবে মডেল হিসেবেও তানিয়া আহমেদ ছিলেন সমান জনপ্রিয়। আফজাল হোসেনের হাত ধরে তার মডেলিং ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল ১৯৯১ সালে।

সে হিসেবে মডেলিংয়ে তানিয়ার ৩০ বছর পূর্ণ হয়েছে সম্প্রতি। তানিয়া আহমেদ ‘রাঙা সকাল’-এ জানান, তার প্রথম বিজ্ঞাপনচিত্রের প্রথম শট এক টেকেই ‘ওকে’ করেছিলেন নির্মাতা আফজাল হোসেন।

মডেলিং ও নাটকে জনপ্রিয়তার কারণে চিত্রনায়ক সালমান শাহও চেয়েছিলেন তানিয়ার বিপরীতে চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে। সোহানুর রহমান সোহানের ‘স্বজন’ চলচ্চিত্র সহ আরো বেশ

কিছু ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব থাকলেও প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ-এর হাত ধরে ২০০৪ সালে ‘শ্যামল ছায়া’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয়েছিল তার। পরবর্তীতে হুমায়ূন আহমেদ-এরই গল্পে,

মেহের আফরোজ শাওন পরিচালিত ‘কৃষ্ণপক্ষ’ চলচ্চিত্রের জেবা চরিত্রে অভিনয় করেই আরাধ্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন তানিয়া আহমেদ।

‘রাঙা সকাল’-এর বিশেষ এই পর্বটি সঞ্চালনা করেছেন রুম্মান রশীদ খান ও নন্দিতা। জোবায়ের ইকবাল-এর প্রযোজনায় তানিয়া আহমেদের সঙ্গে ‘রাঙা সকাল’-এর পর্বটি প্রচারিত হবে আসছে ঈদের ৪র্থ দিন, সকাল ৭টায় মাছরাঙা টেলিভিশনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *