শুধুমাত্র এই 1 টি কারণেই বিয়ে হয়নি সুপারস্টার জিৎ এবং কোয়েলের! জানুন বিস্তারিত।

২০০১ সালে তেলুগু সিনেমাতে অভিনয় করেছিলেন কিন্তু সেটি জনপ্রিয়তা পায়নি. কিন্তু ২০০২ সাল ছিল তার জন্য শুভ একটি বছর । ২০০২ সালে সাথী সিনেমা মাধ্যমে অভিনয় জগতে পদার্পণ করেন এই বাংলায় ।

তারপর আর তাকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি । কিন্তু জিৎ এর জীবন কাহিনী থেকে গেছে অনেকগুলি অসমাপ্ত গল্প যা আজকের প্রতিবেদনে তুলে ধরব ।

কলকাতার কালীঘাট থেকে মুম্বাই রাজ করছেন তিনি ।এবং গোটা টলিউড ইন্ডাস্ট্রি ।বলুনতো কার কথা বলছি? জানি তো বুঝতে পেরেই যাবেন । কারণ তার অভিনয় দক্ষতা তার পরিচয় ।

আমি এই মুহূর্তে কলকাতার বাসিন্দা জিৎ এর কথা বলতে চলেছি ।যিনি অবাঙালি পরিবারে জন্মগ্রহণ করলেও শরীর মধ্যে ছোটবেলা থেকে রপ্ত করে নিয়েছিলেন এই বাংলা এবং বাঙালির সংস্কৃতি এবং হয়ে উঠেছেন একজন খাঁটি বাঙালি।

যখন জিৎ নাটের গুরু সিনেমা টা করছে তখন তার সহ অভিনেত্রী ছিলেন কোয়েল মল্লিক এবং অভিনয় করার সাথে সাথে কোয়েল মল্লিকের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়ে জিৎ । একবার নয় বেশ কয়েকবার জিৎ কোয়েল মল্লিককে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিলেন ।

কিন্তু কোয়েল মল্লিক সে ব্যাপারে কোনো পাত্তা দেয়নি সেই মুহূর্তে । যার ফলে কিছুটা হলেও মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছিলেন তিনি । কিন্তু অপরদিকে নিজেকে আবার শক্ত করেছিলেন ।

পরবর্তী সিনেমা অর্থাৎ কোয়েল মল্লিক এর সাথে পরবর্তী সিনেমা ছিল তার সাত পাকে বাঁধা। সাত পাকে বাঁধা সিনেমা শুটিং করার সময় কোয়েল মল্লিক জিৎ এর প্রেমে পাগল হয়ে যায় ।এবং তারা ঠিক করেন যে সিনেমার শুটিং এর । পরে বিয়ে করবেন কিন্তু আর বিয়ে হয়নি কেন জানেন ?

তার একমাত্র কারণ হচ্ছে তার বাবা অর্থাৎ রঞ্জিত মল্লিক রঞ্জিত মল্লিক ঘটনাটি যখন জানতে পারে তখন কোয়েল মল্লিককে এসব থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দেন কিন্তু যখন তিনি দেখেন যে কোয়েল মল্লিক কোন কিছুই কথা শুনছে না তখন রঞ্জিত মল্লিক নিজের তাদের সম্পর্কে বাধা হয়ে দাঁড়ায়।

এমনটা শোনা যাচ্ছিল যে রঞ্জিত মল্লিক নাকি জিতের বাড়িতে তাকে মারতে গিয়েছিল । কিন্তু যাতে এই ঘটনাটি মিডিয়াতে না ছড়িয়ে পড়ে তাই ধামাচাপা পড়ে গিয়েছিল সেই মুহূর্তে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *