‘থলথলে বৌদি’ অতীত শ্রীলেখা এখন ‘রতিক্রিয়া প্রেমী দিদিমণি’, রিমঝিমের মন্তব্যে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া

সমাজমাধ্যমে ‘মিত্র ভার্সেস মিত্র’ এর লড়াই যেন কিছুতেই থামানো যাচ্ছে না। টলিউডের (Tollywood) দুই অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra) এবং রিমঝিম মিত্রর (Rimjhim Mitra) মুখ দেখাদেখি প্রায় বন্ধ। সমাজ মাধ্যমেও একজন আরেকজনকে ব্লক করে দিয়েছেন।

তবুও টলিউডের সেলিব্রিটিরা কোনও কিছু পোস্ট করলে তা মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হতে বাধ্য। আর সেই সূত্রেই শ্রীলেখার একটি পোস্ট রিমঝিমের নজরে পড়েছে। যা দেখে চুপ থাকেননি রিমঝিম। পাল্টা প্রত্যুত্তরে শ্রীলেখাকে বিঁধে ফের মুখ খুললেন অভিনেত্রী।

উল্লেখ্য, এর আগে একটি পোস্টে রিমঝিম শ্রীলেখাকে ‘থলথলে বৌদি’ বলে কটাক্ষ করেছিলেন। সমাজ মাধ্যমে বডি শেমিং নিয়ে তার এই কটাক্ষ অনেকেই ভালোভাবে নেননি। দুই অভিনেত্রীর লড়াইয়ে তারা বরং শ্রীলেখাকেই সমর্থন করেছিলেন।

এবার শ্রীলেখাকে প্রকাশ্যে ‘রতিক্রিয়া প্রেমী দিদিমণি’ বলে কটাক্ষ করলেন রিমঝিম। শুধু তাই নয়, শ্রীলেখাকে উদ্দেশ্য করে সোশ্যাল মাধ্যমে লম্বা ক্যাপশন দিয়ে বেশ কিছু কথাও লিখেছেন তিনি। রিমঝিমের এই পোস্ট যাতে শ্রীলেখার নজরে পড়ে তার জন্য এই পোস্টের স্ক্রিনশট তুলে শ্রীলেখাকে পাঠানোর আবেদন জানিয়েছেন নেটিজেনদের।

প্রসঙ্গত সম্প্রতি একটি ইন্টারভিউতে শ্রীলেখা নিজের সৌন্দর্যের রহস্য জানিয়েছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, ‘এজ নো বার, কাস্ট নো বার, সেক্স বারবার’। শ্রীলেখার সেই মন্তব্যের প্রসঙ্গ টেনেই সমাজ মাধ্যমে ফের তাকে উল্লেখ করে তোপ দাগলেন রিমঝিম। ঠিক কী বলেছেন অভিনেত্রী?

রিমঝিম তার পোস্টের ক্যাপশনে লিখেছেন, “মিড লাইফ ক্রাইসিস সত্যি মানুষকে এতটা ফ্রাস্ট্রেটেড করে দেয় জানা ছিল না। Ignorance is bliss, is what i have always believed in, তাই যে যা খুশী বলুক গায়ে মাখি না, কারণ আমার basically কিছু এসে যায় না এই সব public দের কথায়।

একটু ফুটেজের জন্য out of context কথা quote করা পাবলিক দের কষ্টটা বুঝি। এই পোস্টের উদ্যেশ্য হল অনুভূতিতে বিশাআআআল আঘাত পাওয়া মরাল মাসি/মেসোদের একি পদস্খলন! নাকি ওনাদের অঙ্গুলির ছোঁয়ায় slang ও আজ পবিত্র?”

এর সঙ্গেই তিনি লিখেছেন, “আমার অবশ্য এখন অন্য ভয় লাগছে… রতিক্রিয়া প্রেমী দিদিমণি(বৌদি বলিনি কিন্তু) যে ভাবে শয়নে স্বপনে এখনও আমায় দেখে চলেছেন আমি safe তো বন্ধুরা? যদিও আমি খুবই ভেঙে পড়েছি এমনিতে, এলিট দিদির এই ভাষা দেখে, দিদি শেখালেন ইংরিজি তে বললেই শব্দ শুদ্ধ হয়ে যায়”।

তার এই কথাগুলি যাতে শ্রীলেখার কাছে পৌঁছে যায় তার জন্য নেটিজেনদের উদ্দেশ্য করে রিমঝিম লিখেছেন, “দয়া করে সস (স্ক্রীনশট) পৌঁছে দিন কেউ , কারণ আপনারা জানেন কে আমায় blockiyeche”।

রিমঝিম আরও লিখেছেন, “একটাই দুঃখ, জ্ঞানের ঝাঁপি খুলে ধেয়ে আসা পাবলিক এখন সব চুপ (কাউকে কাউকে ইনবক্সে জিগ্যেস করেছিলাম এটা নিয়ে কিছু বলার আছে কিনা, network হঠাৎ করে down হয়ে গেছে মনে হয় তাদের ফোনের)

Anyway, হ্যাজ প্রচুর লম্বা হয়ে যাচ্ছে এখানেই ইতি করলাম। আশা করি বৌদি sorry ডিডি আমার ওপর রাগ করবেন না, অন্তত এক দেড় মাসের ফুটেজ আমার সস থেকে খেয়ে নিতে পারবেন, কি ডিডি ? তাই তো?”

রিমঝিমের এই বিস্ফোরক মন্তব্যের পর নেটিজেনরা আপাতত শ্রীলেখার জবাবের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। যদিও বেশ কয়েক ঘন্টা কেটে গেলেও শ্রীলেখা এ পর্যন্ত নিজের বক্তব্য তুলে ধরেননি। উল্লেখ্য, সম্প্রতি বডি শেমিং প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে রিমঝিমের নাম না নিয়েই তাকে কটাক্ষ করেছিলেন শ্রীলেখা। পৌলোমী যোশী নামের জনৈক এক নেটিজেনের মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে জবাব দিতে গিয়ে ইনস্টাগ্রাম রিল ভিডিওতে সমালোচকদের পাল্টা কটাক্ষ করেন তিনি।

“মনস্তাত্ত্বিক বিশ্লেষণের মাস্টার আমি নই, তবে বিশ্লেষণাত্মক মন রয়েছে তাই এই ধরণের নারীর প্রতি সহানুভূতি রয়েছে। এবং আপনারা ভাবেন পুরুষরাই এ সব করে!!! অন্য ‘মিত্র’র কথা ভুলে গিয়েছেন যে আমাকে বডি শেমিং এবং স্লাট শেমিং করেছিল। ওটা বিরক্তকর ছিল, এটা নয়”, এভাবেই রিমঝিমকে পরোক্ষে কটাক্ষ করেছিলেন শ্রীলেখা। যার পাল্টা জবাব ফেসবুকে দিলেন রিমঝিম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *