এবার মা’দকসহ বলিউড অ’ভিনেতা গ্রে’ফতার

মা’দককা’ণ্ডে জড়িত থাকার অ’প’রাধে বলিউড অ’ভিনেতা আরমান কোহলিকে গ্রে’ফতার করেছে ভা’রতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)।

শনিবার (২৮ আগস্ট) তার বাড়িতে তল্লা’শি চালিয়ে মা’দক উ’দ্ধার করে ভা’রতের এই মা’দক নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। এরপর নিষিদ্ধ মা’দক মজুত করে রাখার অ’ভিযোগে গ্রে’ফতার করা হয় অ’ভিনেতা এবং প্রাক্তন এই বিগ বস প্রতিযোগীকে।

এদিকে, আজ রোববার (২৯ আগস্ট) সকালে আরমানকে গ্রে’ফতার দেখানো হয়। মা’দক মা’মলায় অ’ভিনেতাকে আজই মুম্বাইয়ের নগর আ’দালতে তোলা হবে।তবে এটা প্রথম ঘটনা নয়।

এর আগেও বেআইনি কাজে জড়িয়ে বিপদে পড়েছিলেন তিনি। ২০১৮ সালেও গ্রে’ফতার হয়েছিলেন আরমান।সে বার তার বাড়ি থেকে উ’দ্ধার হয়েছিল ৪১টি স্কচ হুইস্কির বোতল। যা ছিল আইনবিরুদ্ধ।

এছাড়া বান্ধবী নীরু রন্ধওয়াকে শারীরিকভাবে হেনস্থা করার অ’ভিযোগেও অ’ভিযু’ক্ত হয়েছিলেন আরমান। পরে অবশ্য আরমানের বি’রুদ্ধে সব অ’ভিযোগ তুলে নিয়েছিলেন নীরু।

এদিকে গতকাল গ্রে’ফতারের পর ভা’রতের সংবাদ সংস্থা এএনআই জানায়, শনিবার অ’ভিনেতার মুম্বাইয়ের বাড়িতে তল্লা’শি অ’ভিযান চালায় এনসিবির গোয়েন্দারা।

তল্লা’শির পর আরমানের বাড়ি থেকে মা’দক উ’দ্ধার করা হয়। এরপর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অ’ভিনেতাকে হেফাজতে নেয় এনসিবি।

এনসিবির মুম্বাইয়ের জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ে জানান, মা’দক প্রশ্নে ত’দন্তকারীদের যথাযথ জবাব দিতে পারেননি অরমান। তাই গ্রে’ফতার করা হয়েছে তাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *