জেলের মধ্যে পরীমনির সাথে কী কী করা হয়েছে জানালেন পরীমণি নিজেই!

মাদক আইনে গ্রেপ্তার হওয়ার ২৭ দিন পর কারামুক্ত হয়ে বাসায় ফিরেছেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনি। নিচ্ছেন বিশ্রাম। জামিনে মুক্তি লাভের পর গণমাধ্যমের সঙ্গে কোনো কথাই বলেননি নায়িকা।

তবে পরীর পক্ষ থেকে তার নানা শামসুল হক কথা বলেছিলেন। তিনি গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘আগামী কয়েকদিন একটু বিশ্রামে থাকুক। কারো সঙ্গেই কোনও কথা বলবে না পরীমণি। ওর মানসিক অবস্থা এখনও ততোটা ভালো না। সব কিছু যেন ঠিক হয়ে যায়।’

কিন্তু নামটা যখন পরীমনি তখন কী হবে আগে থেকে বলা কঠিন। এবারও তাই হলো। পরীমনি বিক্ষিপ্ত মন নিয়েই কথা বললেন পরিচিত কয়েকজন সাংবাদিকের সঙ্গে।

গত ২৭ দিন সম্পর্কে জানতে চাইতেই বললেন, ‘নিয়মিত জীবন-যাপন থেকে হঠাৎ কী যে হয়ে গেল কিছুই বুঝতে পারলাম না। কোনো ফিলিংস নেই!’ এরপর নিজ থেকেই আশ্বাস দিলেন জেলজীবনের ২৭ দিনের গল্প ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করবেন।

তবে আজ নয়, অন্য এক দিন। জামিনে ছাড়া পেয়ে পরীমনি বাসায় ফিরেছেন। মুক্তির আনন্দ চোখে-মুখে। কেমন লাগছে? এ প্রশ্নের উত্তরে পরীমনি বলেন, ‘একটা স্বপ্ন নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলাম।

ঘুম ভাঙলো বাসায় চলে এলাম- এমন মনে হচ্ছে।’ এর মধ্যেই বাসায় ফিরে শুনেছেন বাড়িওয়ালা বাসা ছাড়ার নোটিশ দিয়েছেন। বিষয়টি উল্লেখ করে সময়ের সবচেয়ে আলোচিত এই চিত্রনায়িকা বলেন, ‘বাসায় এসেই

জানতে পারলাম বাসা ছাড়ার নোটিশ দিয়েছে। কিন্তু আসলে কিছুই করার নেই। এ বাড়িতে আরো অনেকে থাকেন। তাদের কথাও ভাবতে হবে। তবে এই মুহূর্তে কোথায় যাবো ভেবে পাচ্ছি না।

জীবনটা অতিষ্ঠ করে ছেড়ে দিয়েছে!’ তবে জীবনের এই কঠিন দুঃসময়ে পরীমনি সাংবাদিকদের অবদান বিশেষভাবে স্মরণ করেছেন, কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। ‘সংবাদকর্মীরা আমার জন্যে অনেক কিছু করেছেন।

ক্যারিয়ারের শুরুর দিন থেকে আজকের দিন পর্যন্ত তাদের সাপোর্ট পাচ্ছি। ফলে ধন্যবাদ দিয়ে তাদের ছোট করব না। এভাবেই সব সময় আমার পাশে থাকবেন।’ বলেছেন পরীমনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *