পায়ের যেকোনো ফাঁটা বা যেকোনো দাগ কেবল আলু দিয়ে দারুণ কায়দায় দূর করার ট্রিকস, রইলো ভিডিও সহ!

ছোট অনুষ্ঠান বাড়ি হোক বা বড় অনুষ্ঠান বা যেকোনো ধরনের উৎসব হোক নিজেকে সুন্দর এবং শ্রেষ্ঠ প্রমাণ করার প্রতিযোগিতা ছেলে-মেয়ে উভয়ের মধ্যেই দেখা যায়।

কিন্তু একথা অস্বীকার করার কোন উপায় নেই যে ছেলেদের তুলনায় মেয়েরা নিজেদের স্বাস্থ্য সম্পর্কে যথেষ্ট সচেতন এবং সে ম তো তাদের প্রস্তুতি ও চলে । তাই পার্লার দেখা যায় মেয়েদের ভিড় ।

কিন্তু বর্তমান যুগে পার্লারে প্রতিটি জিনিসের দাম এত পরিমাণে বেড়ে গেছে যে পার্লারে গিয়ে ত্বক চর্চা করা খুব একটা সহজ কথা নয় । তাহলে উপায় কি ?

ত্বক চর্চা করা কি বন্ধ করে দেওয়া যাবে? একদমই না উপায় রয়েছে এবং সেই উপায়টি আমাদের বাড়িতেই রয়েছে। আমরা দেখেছি যে অকারণে শীতকাল এলেই আমাদের পায়ের গোড়ালি হাটতে শুরু করে

যার ফলে বিভিন্ন রকম অ-প্রী-তিকর পরি-স্থিতির মধ্য দিয়ে পড়তে হয় আমাদের ।শুধু মাত্র শীত কাল নয় অন্যান্য সময় ও একই হাল হয় আমাদের । আজ সেই গোড়ালি ফাটার থেকে মুক্তি পাবার উপায় বলতে এলাম ।

আর্দ্রতা জন্য শরীর ম-সৃ-ণতা হা-রিয়ে যায় । যার ফলে শরীর রু-ক্ষ শু-ষ্ক হয়ে যায় । এবং মাঝেমধ্যেই এই জন্য গো-ড়ালি ফে-টে যায় । যা দেখতে খুব বি-চ্ছিরি লা-গে । এই গো-ড়ালি ফা-টা থেকে রেহাই পেতে অনেক মানুষ অনেক নামিদামি ক্রিম ব্যবহার করেছে ।

কিন্তু ফল পাইনি তেমনভাবে । আজ আপনাদের সামনে যে পদ্ধতি বলতে এসেছি সেটা একদম ঘরোয়া পদ্ধতি এবং ফল পাবেন হাতেনাতে । এই উপকরণটি তৈরি করার ক্ষেত্রে আপনাকে বাইরে কোথাও যেতে হবে না ।

ক-রোনা র এই ম-হা-মা-রীর কথা মাথায় রেখে আপনাদের জন্য ঘরোয়া রেমিডি তৈরি করা হয়েছে ।প্রথমে আপনাকে একটি আলু নিতে হবে এবং একটি গ্রেটার এর সাহায্যে সেটিকে ভালো করে গ্রেট করে নিতে হবে ।

তারপর সেখান থেকে যে রস পাওয়া যাবে সেটি অন্য একটি পাত্রে তুলে রাখতে হবে । এরপর তার মধ্যে যোগ করতে হবে এই উপকরণ গু-লি। সেই আলুর রসের মধ্যে যোগ করতে হবে অর্ধেকটি লেবুর রস এবং এক চামচ নুন ও এক চামচ টুথপেস্ট।

সমস্ত উপকরণ গু-লিকে ভালো রকম ভাবে মিশিয়ে আপনি যদি আপনার গোড়ালির মধ্যে প্রতিনিয়ত ব্যবহার করেন তাহলে মাত্র এক সপ্তাহে আপনি ফল পাবেন হাতেনাতে । দাগযুক্ত ফাটা গোড়ালি হয়ে উঠবে ম-সৃণ । তাহলে আর দেরি কিসের আজকেই শুরু করে দেন এই রেমিডি ব্যবহার করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *