Home / সারা দেশ / প্রবাসীদের জন্য যে কারণে আলাদা আদালত চাইলেন ব্যারিস্টার সুমন

প্রবাসীদের জন্য যে কারণে আলাদা আদালত চাইলেন ব্যারিস্টার সুমন

Advertisement

বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সমস্যা নিয়ে লাইভ করে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। এবার তিনি সিলেটের পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে সঞ্চালিত একটি লাইভে প্রবাসীদের জন্য আলাদা আদালত চেয়েছেন।

শুক্রবার (০৪ ডিসেম্বর) লাইভে প্রবাসীরা সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স পাঠায় এবং তাদের অবদানকে অনস্বীকার্য বলেন সুমন।তিনি এদিন বলেন, ‘প্রবাসীদের জন্য আলাদা আদালত চাই, আলাদা কোর্ট চাই। কারণ হলো

তারাই সবচেয়ে বেশি রেমিটেন্স পাঠায় বাংলাদেশে। প্রবাসীদের অবদানের কথা কেউ অস্বীকার করেন না। সব রাজনৈতিক দলই প্রবাসীদের অবদানের কথা স্বীকার করেন। কিন্তু প্রবাসীরা সবচেয়ে বেশি হয়রানির

শিকার হন বিমানবন্দরে। এরপরে প্রবাসীদের জায়গা জমি ও বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আদালতে যেতে হয়। পুলিশ চাইলেও আইনের কারণে তাদের সঠিকভাবে সহযোগিতা করতে পারেন না।’

তিনি আরো বলেন, প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানের জন্য আলাদা সেল তৈরি করা হয়েছে। বলা হয়েছে, প্রায়োরিটি দিয়ে তাদের সমস্যার সমাধান করা হবে। পুলিশ আইনগত কারণে প্রবাসীদের সেভাবে সেবা দিতে পারে না। তাই এখন সময়ের দাবি প্রবাসীদের জন্য একটি আলাদা আদালত গঠন করা।

এ সময় ব্যারিস্টার সুমন বলেন, আমি মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীরও দৃষ্টি আকর্ষণ করছি সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার প্রবাসীদের প্রতি কৃতজ্ঞতাস্বরূপ হলেও নতুন একটি সিস্টেমের মধ্যে দিয়ে তাদের সমস্যার সমাধান হোক।

বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সমস্যা নিয়ে লাইভ করে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। এবার তিনি সিলেটের পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে সঞ্চালিত একটি লাইভে প্রবাসীদের জন্য আলাদা আদালত চেয়েছেন।

শুক্রবার (০৪ ডিসেম্বর) লাইভে প্রবাসীরা সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স পাঠায় এবং তাদের অবদানকে অনস্বীকার্য বলেন সুমন।তিনি এদিন বলেন, ‘প্রবাসীদের জন্য আলাদা আদালত চাই, আলাদা কোর্ট চাই। কারণ হলো

তারাই সবচেয়ে বেশি রেমিটেন্স পাঠায় বাংলাদেশে। প্রবাসীদের অবদানের কথা কেউ অস্বীকার করেন না। সব রাজনৈতিক দলই প্রবাসীদের অবদানের কথা স্বীকার করেন। কিন্তু প্রবাসীরা সবচেয়ে বেশি হয়রানির

শিকার হন বিমানবন্দরে। এরপরে প্রবাসীদের জায়গা জমি ও বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আদালতে যেতে হয়। পুলিশ চাইলেও আইনের কারণে তাদের সঠিকভাবে সহযোগিতা করতে পারেন না।’

তিনি আরো বলেন, প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানের জন্য আলাদা সেল তৈরি করা হয়েছে। বলা হয়েছে, প্রায়োরিটি দিয়ে তাদের সমস্যার সমাধান করা হবে। পুলিশ আইনগত কারণে প্রবাসীদের সেভাবে সেবা দিতে পারে না। তাই এখন সময়ের দাবি প্রবাসীদের জন্য একটি আলাদা আদালত গঠন করা।

এ সময় ব্যারিস্টার সুমন বলেন, আমি মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীরও দৃষ্টি আকর্ষণ করছি সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার প্রবাসীদের প্রতি কৃতজ্ঞতাস্বরূপ হলেও নতুন একটি সিস্টেমের মধ্যে দিয়ে তাদের সমস্যার সমাধান হোক।

Advertisement

Check Also

দিঘার সমুদ্রে ত-লিয়ে যাওয়া লুলিয়ার প্রচেষ্টায় বেঁ-চে ফিরলেন তরুণী, তু-মুল ভাইরাল ভিডিও!

Advertisement আমাদের চারপাশের সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রায় সময় এমন কিছু ভিডিও ভাইরাল হয় যেগুলি সম্পর্কে আমাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *