ম্যাচে প্রধানমন্ত্রী আমাকে পাঁচবার ফোন করেছেন: পাপন

ক্রীড়াবান্ধব ব্যক্তিত্ব হিসেবে বিশেষ পরিচিতি রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। বাংলাদেশের যেকোনো খেলাধুলারই খবরাখবর রাখার চেষ্টা করেন তিনি। বিশেষ করে ক্রিকেট দলের প্রায় সব ম্যাচই টিভিতে

কিংবা মাঠে উপস্থিত থেকে দেখার চেষ্টা করেন তিনি। ব্যতিক্রম হয়নি আজও। আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জেতার ম্যাচটি টিভির সামনে বসে দেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

টাইগাররাও হতাশ করেননি প্রধানমন্ত্রীকে। ৩০৬ রান করে আফগানিস্তানকে হারিয়েছে ৮৮ রানের বড় ব্যবধানে। পুরো ম্যাচে অন্তত পাঁচবার তিনি ফোন করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে।

সেঞ্চুরিয়ান লিটন দাস ও ফিফটি করা মুশফিককেও অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি। প্রথম ম্যাচের মত চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের হসপিটালিটি বক্সে বসে আজকের ম্যাচটিও দেখেছেন পাপন।

খেলা শেষে মাঠ ছাড়ার সময় সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত আলাপে প্রধানমন্ত্রীর ফোন দেওয়ার এবং অভিনন্দন জানানোর কথা জানিয়েছেন পাপন। তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে পাঁচবার ফোন করেছেন।

তিনি টিভির সামনে সারাক্ষণ বসে ছিলেন। যখন প্রথম ফোন করেছেন, তখন বলেছেন, খুবই ভালো খেলছে। সেঞ্চুরির (লিটনের) পরও আমাকে ফোন করেছেন। লিটন দাস এবং মুশফিকুর রহিমকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।’

ম্যাচে আফগানিস্তানের ইনিংসের ৪৫তম ওভারে দারুণ একটি ক্যাচ ধরেন পরিবর্তিত ফিল্ডার মাহমুদুল হাসান জয়। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বলে মুজিব-উর রহমানের শট প্রায় ছক্কা হয়ে যাচ্ছিল।

সেটি লুফে নিয়ে বাউন্ডারি পেরিয়ে যাচ্ছিলেন জয়। পরে তা হাওয়ায় ভাসিয়ে নিজের ভারসাম্য ফিরিয়ে দ্বিতীয় দফায় তালুবন্দী করেন তিনি। এ ক্যাচ দেখে জয়কে পুরস্কৃত করতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এ কথা জানিয়ে পাপন বলেছেন, ‘পরে যখন ফোন করলেন- বলেছেন, শেষে কষ্ট করে ক্যাচ ধরলো ওর নামটা কী? ওকে তো আমার পুরস্কার দিতে হবে। এত সুন্দর ক্যাচ ধরেছে। মানে তিনি পুরাটা সময় খেলা দেখেছেন। দারুণ উপভোগ করেছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.