দুর্ঘটনার কবলে কাঁচা-বাদামখ্যাত ভুবন বাদ্যকর, হাসপাতালে ভর্তি

সম্প্রতি তিনি একটি সেকেন্ড হ্যান্ড চারচাকা গাড়ি কিনেছিলেন। সেই গাড়ি চালানো শেখার সময়ই ঘটে অঘটন। হঠাৎ গাড়িটি একটি দেওয়ালে ধাক্কা মারে। ঘটনায় গুরুতর আহত হন ভুবন।

হাসপাতালে ভর্তি হলেন ‘বাদামকাকু’। দুর্ঘটনার কবলে পড়লেন ‘কাঁচা বাদাম’ খ্যাত ভুবন বাদ্যকর। আপাতত তিনি চিকিৎসাধীন সিউড়ি হাসপাতালে।

সম্প্রতি তিনি একটি সেকেন্ড হ্যান্ড চারচাকা গাড়ি কিনেছিলেন। সেই গাড়ি চালানো শেখার সময়ই ঘটে অঘটন। হঠাৎ গাড়িটি একটি দেওয়ালে ধাক্কা মারে। ঘটনায় গুরুতর আহত হন ভুবন বাদ্যকর।

তাঁর বুকে এবং মুখে আঘাত লেগেছে। বর্তমানে তিনি সিউড়ি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সেখানে তাঁর বুকের এক্স-রে করানো হচ্ছে।

তাঁর গানের কথা ও গলাই তাঁকে ভাইরাল করে। ধীরে ধীরে পাচ্ছেন শিল্পীর তকমাও। বিভিন্ন জায়গায় ইতিমধ্যেই অনুষ্ঠান করার সুযোগ পাচ্ছেন ভুবন বাদ্যকর।

সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমে তিনি জানান, বাদাম বিক্রি ছেড়ে এবার গানেই মনোনিবেশ করবেন তিনি। দিন কয়েক আগে কলকাতার এক পাঁচতারা রেস্তোরাঁয় অনুষ্ঠান করেন তিনি।

হাজির ছিলেন বাংলা সিনেমা ও টেলিভিশন দুনিয়ার একাধিক পরিচিত মুখ। সকলেই তাঁর গানের সঙ্গে রিল তৈরি করেন সেদিন। আর সকলের মধ্যমণি ছিলেন স্বয়ং বাদামকাকু।

এক গানই যে তাঁকে রাতারাতি তারকা বানিয়ে দিয়েছে, সে ব্যাপারে যথেষ্ট ওয়াকিবহাল ভুবন। এবিপি আনন্দকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমার গান নানা জায়গায় বাজছে। নাইজিরিয়াতেও বেজেছে।

সবাই নাচছে আমার গানে। খুব ভাল লাগছে। বম্বে থেকে ডাক পাচ্ছি। দিল্লি এবং অসম থেকেও ডাকছে।’ তাঁর গানে শুধু বাংলার মানুষ নন, মেতেছেন টেরেন্স লুইস থেকে অল্লু অর্জুনের মেয়েও।

টেরেন্স লুইস সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুবন বাদ্যকরের প্রশংসা করে লেখেন, ‘ভুবন বাদ্যকরের নাম বিশেষভাবে উল্লেখ করছি। যিনি রাস্তায় ঘুরে রোজগারের আসায় নিজের দ্রব্য বিক্রির জন্য এই গান গাইতেন।

শুনেছি তাঁকে মিউজিক লেবেলের তরফে স্বত্ত্ব দেওয়া হয়েছে। তাঁর রিমিক্স সংস্করণ ট্রেন্ডিং জেনে খুবই আনন্দ হচ্ছে। এটা দেখে আমার বিশ্বাস বাড়ছে যে যা খুশি সম্ভব… জাদুর বিশ্ব।’ আপাতত ভুবন বাদ্যকরের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছেন সকলে।
সূত্র: এবিপি লাইভ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.