ভাস্কর্য নির্মাণ নিয়ে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী

অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে ধর্মের নামে কোনো ধরনের বি”ভেদ-বি’শৃং’খলা সৃষ্টি করতে দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ধর্মীয় মূল্যবোধ সমুন্নত রেখে মানুষের প্রগতি, অগ্রগতি ও উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

রাজনৈতিক ম’দদে একাত্তরের পরাজিত শ’ক্তির একটি গো’ষ্ঠী সরকারকে ভ্রু’কুটির ধৃ’ষ্টতা দেখাচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তীর দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ। করোনার ভ’য়াব’হতায় বিজয়ের ৪৯ বছরের আনুষ্ঠানিকতা ডিজিটাল প্রযুক্তির কল্যাণে হয়েছে ভার্চুয়াল। দিবসটিতে গণভবন থেকে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এই ভূখণ্ডে সব ধর্ম, বর্ণের মানুষের আ’ত্মত্যা’গে গড়ে উঠেছে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ। এ বিশ্বাস উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে হুঁ’শিয়া’র করে বলেন, ধর্মের নামে কোনো বি’ভেদ সৃষ্টি করতে দেয়া হবে না।

সাম্প্রতিক ঘট’নার ইঙ্গিত দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাজনৈতিক মদদে সমাজে অশান্তি সৃষ্টি করতে ধর্মকে ব্যবহার করছে একটি গোষ্ঠী। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় ধর্ম নিরপেক্ষতায় বিশ্বাসী বঙ্গবন্ধুর অবদান উল্লেখ করেন কন্যা শেখ হাসিনা।

করোনা মোকাবিলা আর অর্থনৈতিক ক্ষতি সামলে নিতে সরকারের অবস্থানও তুলে ধরে সরকার প্রধান। ভাষণ শেষ করেন জাতীয় কবির লেখা কয়েক চরণে, আহ্বান জানান পূর্বপুরুষের বিজয় নিশান সমুন্নত রাখার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *