কাবার যে পাথরটায় চুমু খেতে যান, সেটাকি মূর্তি না? : ডা. জাফরুল্লাহ

কাবার যে পাথরটায় চুমু খেতে যান-ভাস্কর্যের প্রস’ঙ্গ টেনে আলেম’দের উদ্দেশ্যে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন,আলেম সাহেবরা একটা ভু’ল কাজ করছেন। ইসলামে অন্যের মতামতের ও’পর হস্তক্ষেপ দেয়া ধর্ম নয়।

আজকে কি তাহলে আপনারা মা দুর্গার মূর্তি রাখতে দিবেন না। আজকে কাবার যে পাথরটা আছে যেটা চুমু খেতে যান আপনারা। সেটাকি মূর্তি না, না সেটা উল্কা খন্ড।সম্প্রতি দেশের একটি বেস’রকারি টেলিভিশনে টকশো অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ইসলামে কিন্তু ভিন্ন মতের ধর্ পালনের অধিকার আছে। আমি মনে করি অলেমগণ জ্ঞানী মানুষ তাদেরকে এই সকল বিতর্কে না জড়িয়ে সরাসরি মানুষের কল্যাণ মুখি কাজ করা উচিত।

তিনি বলেন, বরঞ্চ উনাদের নজর দেওয়া উচিত একই অ’পরাধ যখন সাধারণ মানুষ করে আর সেই অ’পরাধ যদি একজন ইমাম করেন কোন ইমাম মুয়াজ্জিনের নামে যেন যৌ*aন নি’পীড়ন, স্ত্রী নি’র্যাতনের কথা না আসে। আরও যেটা ওনাদের করা উচিত আমরা সবাই যেন ভালো থাকি।

ডা. জাফরুল্লাহ আরও বলেন, ভাস্কর্য আন্দোলন প্রস’ঙ্গে তিনি বলেন, প্রথম দিনই তাদেরকে থামানো উচিত ছিল। রাস্তায় বের হতে দেওয়ার ফলে ওনারা মনে করছেন ডিজিটাল আইন শুধু আমাদের জন্যই।

আওয়ামী লীগের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, উনাদের যেসব নেতৃবর্গ বলছেন বুড়িগঙ্গায় ফে’লে দিবেন এসব বলা উচিত নয়। স’রকারের উদ্দেশ্য করে তিনি আরও বলেন, আলেমরা একটি ভু’ল পথে যাচ্ছে তাদেরকে এভাবে রাস্তায় বের হতে দেয়া উচিত হবে না।

পাশাপাশি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সংযত হওয়ার আহ্বান করেন তিনি।কাবার যে পাথরটায় চুমু খেতে যান-ভাস্কর্যের প্রস’ঙ্গ টেনে আলেম’দের উদ্দেশ্যে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন,

আলেম সাহেবরা একটা ভু’ল কাজ করছেন। ইসলামে অন্যের মতামতের ও’পর হস্তক্ষেপ দেয়া ধর্ম নয়। আজকে কি তাহলে আপনারা মা দুর্গার মূর্তি রাখতে দিবেন না। আজকে কাবার যে পাথরটা আছে যেটা চুমু খেতে যান আপনারা। সেটাকি মূর্তি না, না সেটা উল্কা খন্ড।

সম্প্রতি দেশের একটি বেস’রকারি টেলিভিশনে টকশো অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ইসলামে কিন্তু ভিন্ন মতের ধর্ পালনের অধিকার আছে। আমি মনে করি অলেমগণ জ্ঞানী মানুষ তাদেরকে এই সকল বিতর্কে না জড়িয়ে সরাসরি মানুষের কল্যাণ মুখি কাজ করা উচিত।

তিনি বলেন, বরঞ্চ উনাদের নজর দেওয়া উচিত একই অ’পরাধ যখন সাধারণ মানুষ করে আর সেই অ’পরাধ যদি একজন ইমাম করেন কোন ইমাম মুয়াজ্জিনের নামে যেন যৌ*aন নি’পীড়ন, স্ত্রী নি’র্যাতনের কথা না আসে। আরও যেটা ওনাদের করা উচিত আমরা সবাই যেন ভালো থাকি।

ডা. জাফরুল্লাহ আরও বলেন, ভাস্কর্য আন্দোলন প্রস’ঙ্গে তিনি বলেন, প্রথম দিনই তাদেরকে থামানো উচিত ছিল। রাস্তায় বের হতে দেওয়ার ফলে ওনারা মনে করছেন ডিজিটাল আইন শুধু আমাদের জন্যই। আওয়ামী লীগের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, উনাদের যেসব নেতৃবর্গ বলছেন বুড়িগঙ্গায় ফে’লে দিবেন এসব বলা উচিত নয়। স’রকারের উদ্দেশ্য করে তিনি আরও বলেন, আলেমরা একটি ভু’ল পথে যাচ্ছে তাদেরকে এভাবে রাস্তায় বের হতে দেয়া উচিত হবে না। পাশাপাশি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সংযত হওয়ার আহ্বান করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *