Breaking News
Home / শিক্ষা / প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে, অনুমোদন পেলে ১ ঘণ্টায় এইচএসসির ফল

প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে, অনুমোদন পেলে ১ ঘণ্টায় এইচএসসির ফল

Advertisement

এইচএসসি ও সমমানের ফলাফল প্রস্ততির কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। ফলাফল কীভাবে দেয়া হবে সে সংক্রান্ত একটি খসড়া নীতিমালাও তৈরির কাজ শেষ হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রীর অনুমোদন পেলে মাত্র ১ ঘণ্টার মধ্যে সবগুলো শিক্ষা বোর্ড রেজাল্ট প্রকাশ করতে পারবে। সেভাবেই প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে বোর্ডগুলো। শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী চলতি মাসের মধ্যেই রেজাল্ট দেয়া হবে।

ফলাফল নির্ধারণে গঠিত টেকনিক্যাল কমিটি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টেকনিক্যাল কমিটির এক সদস্য দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ইতোমধ্যে শিক্ষার্থীদের জেএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষার ট্রান্সিক্রিপ্ট সংগ্রহ করে সেগুলো সফটওয়্যারে ইনপুট দেয়া হয়েছে।

কোডিংয়ের মাধ্যমে রেজাল্ট দেয়ার জন্য সবকিছু প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে। তবে ফলাফল কীভাবে দেয়া হবে সেটি এখনো চূড়ান্ত করা হয়নি। একটি খসড়া তৈরি করা হয়েছে। সেটি চূড়ান্ত অনুমোদন দিলে ফল প্রকাশ করতে সর্বোচ্চ ১ ঘণ্টা সময় লাগবে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে টেকনিক্যাল কমিটি’র সদস্য ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এস এম আমিরুল ইসলাম রবিবার (২০ ডিসেম্বর) সকালে বলেন, আমাদের কাজ প্রায় শেষ।

তবে কোনো কিছুই এখনো চূড়ান্তভাবে অনুমোদন দেয়া হয়নি। ফলে এখনি কিছু বলা যাচ্ছে না। মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী চলতি মাসেই রেজাল্ট প্রকাশ করা হবে।

এ বিষয়ে গ্রেড মূল্যায়ন কমিটির সদস্য সচিব ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ বলেন, ফলাফল তৈরির জন্য এখনো টেকনিক্যাল টিম কাজ করে যাচ্ছে।

কীভাবে রেজাল্ট দেয়া হবে তার একটি খসড়া নীতিমালা তৈরির কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সেটি নিয়ে খুব শিগগিরই গ্রেড মূল্যায়ন কমিটি বৈঠকে বসবে। সেখানে যাচাই-বাছাই শেষে চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য নীতিমালা শিক্ষামন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে।

কবে নাগাদ রেজাল্ট প্রকাশ করা হবে? জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, ফলাফল তৈরির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। কাজ শেষ হলে সেটি সবাইকে জানিয়ে দেয়া হবে। ডিসেম্বর মাসেই রেজাল্ট দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, করোনার কারণে এবছর জেএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষার রেজাল্টের ওপর ভিত্তি করে এইচএসসিতে অটোপাস দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। রেজাল্ট তৈরির জন্য একটি জাতীয় পরামর্শক কমিটি তৈরি করে মন্ত্রণালয়।

তাদের পরামর্শে ফলাফল তৈরির জন্য গ্রেড মূল্যায়ন কমিটি কাজ করছে। এই কমিটির আহবায়ক করা হয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নাজমুল হক খানকে।

Advertisement

Check Also

ব্রেকিং নিউজঃ ৫২ হাজার শূন্যপদের তালিকা প্রকাশ

Advertisement বেসরকারি স্কুল-কলেজ, মাদারাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এন্ট্রি লেভেলের ৫৪ হাজার ৩০৪টি পদে শিক্ষক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *