সুরেলা কণ্ঠে গান গেয়ে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল অসহায় বৃদ্ধা, উঠল প্রশংসার ঝড়

শিল্পীর যে কোনো জা’ত হয় না, হয় না কোনো পেশাগত বা পরিচয়গত ভেদাভেদ, সব কিছুর উর্ধ্বে সে যে একজন শিল্পী, সে কথা আরেকবার প্রমাণ হয়ে গেলো বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষত ফেসবুকের সূত্রে মানুষের কাছে মানুষের প্রতিভা পৌঁছে যাওয়ার পথটা যে সুগম হয়ে গেছে, এ কথা অনস্বী’কার্য।

ঘরে বসে ইন্টারনেটের দৌলতে আমাদের মু’ঠোফোনের স্ক্রি’নে সহজেই চলে আসছে সবকিছু। তেমনই সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এক প্রৌ’ঢ়া ভদ্রমহিলা লতা মঙ্গেশকরের “না যেওনা, রজনী এখনও বাকি” গানটিতে অসাধারন দ’ক্ষতায় গেয়েছেন।

মহিলার পরনে নেই কোনো উচ্চমানের পো’শাক, সাধারণ বা বলা চলে রীতিমত ম’লিন পোশাকেই তিনি অসাধারণ। নিজের প্রতিভার দ’ক্ষতায়! কোনো প্রশিক্ষণের সুযোগও হয়তো তার মেলেনি, তবু এই স্বশিক্ষিত প্রতিভার জোরে সে আপন খুশিতেই মঞ্চ মা’তিয়ে রেখেছে।

সোশ্যাল মিডিয়া, বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে নিজের প্রতিভা সবার সামনে আনার সবথেকে সহজ গণমাধ্যম। শুধু সামনে আনাই নয়, রীতিমত শে’য়ারের ঝড় তুলে ভাইরাল হওয়াও খুব স্বাভাবিক যদি তেমনই গুণ থাকে। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া, মূলত ফেসবুকের দৌলতে মানুষের কাছে মানুষের পৌঁছানো খুবই সহজ হয়ে গেছে।

আর যদি তা হয় এমন এক মিষ্টি গান, তা হলে তার জন্য মানুষের সমা’দরের যে কমতি হবে না, তা তো বলাই বাহুল্য। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া খুব সহজ একটা প্ল্যা’টফর্ম এনে দিয়েছে সব শিল্পীদের সামনে, রিয়ালিটি শো র ঝ’ঞ্ঝাট না সামলেই যেখানে আ’ত্মপ্রকাশ করতে পারছে প্রতিভারা।

এই ভদ্রমহিলা তেমনই অনায়াসে গেয়ে ফেললেন লতা মঙ্গেশকরের গাওয়া ক’ঠিন গানটি, কোনোরকম য’ন্ত্রানুষ’ঙ্গ, এমনকি তানপুরা বা হারমোনিয়ম ছাড়াই গানটি দক্ষ ভ’ঙ্গিতে পরিবেশন করলেন গানটি। সুর, তাল, বা লয় কোনোকিছুরই ঘা’টতি বা ভুল ভদ্রমহিলার গানে দেখা যায়নি, নেটিজেনদের মধ্যে আ’লোড়ন ফেলে দিয়েছে এই গানটি,

এমনকি অনেকের বক্তব্য স্বয়ং লতাজী শুনলে তাকে ব্য’ক্তিগত ভাবে আ’শীর্বাদ করতেন হয়তো বা, এতোই নিঁ’খুত গেয়েছেন তিনি। এরকম ঈ’শ্বরপ্রদত্ত প্রতিভা সমা’জের কোণায় কোণায় কত যে লুকিয়ে আছে তা কে জানে, হয়তো তারা অব’হেলিত, শুধু একটু সঠিক সুযোগের অপেক্ষায় তাদের প্রতিভা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বৃদ্ধ মহিলার অসাধারণ গানের এই ভিডিওটি ১ লক্ষ ১৮ হাজার মানুষ পছ’ন্দ করেছেন। যা তাঁকে জনপ্রি’য়তার শিখরে নিয়ে গেছে। দুর্দা’ন্ত সুরে গাওয়া গান এখনো অবধি ১৫ লাখের বেশি দেখেছে। যা তার জন্য বড় বিষয়।

ভিডিওটি নিজেদের টাইমলাইনে শে’য়ার করেছেন ১৩ হাজার মানুষ। ফলে রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে। প্রায় চার হাজার মানুষ তার ক’ণ্ঠের প্রশং’সা করেছেন। অনেকেই তার ঠিকানা জানতে আগ্রহী। তার পরবর্তী গান শোনার জন্য অনেকেই কমে’ন্ট করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *