বছরের শেষ দিনে শো’কের ছায়া অ’ভিনেতার পরিবারে

Sabbir Rahman 0

ঢাকাই সিনেমা’র অ’ভিনে’তা ও বাং’লাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধা’রণ সম্পা’দক জায়েদ খানে’র বাবা মা;রা গেছেন। বৃহ’স্প’তিবার (৩১ ডিসেম্বর) সকাল সা’ড়ে ৯টায় হাস’পাতা’লে তি’নি শে’ষ নিঃ’শ্বা’স ত্যা’গ করেন।

বিষয়টি জা’য়েদ খান নি’জে’ই জানিয়েছেন। তিনি ফেসবু’কে লেখেন, আ’মা’র আব্বা নাই। আজ স’কাল সাড়ে ৯টা ৩০ মিনিটে হাস’পাতা’’লে শে’ষ নিশ্বা’স ত্যাগ করে’ছেন। ইন্না-লিল্লাহ ওয়া ই’ন্না’ইলাহী রাজিউ’ন।

চল’চ্চিত্র নিয়ে জা’য়েদ খানের উন্মা’দনা বরা’ব’রই একটু বেশি। শুটিং থাকুক বা না-থাকুক এফ’ডিসি’তেই বেশি সময় কা’টান তিনি। চলচ্চিত্র-সং’শ্লিষ্ট যে’কো’নো কাজে পা’ওয়া যায় তাঁকে। ‘জা’য়েদ খান বললেন, ‘আমি শত’ভা’গ চ’লচ্চি’ত্রের মানুষ।

সেই ছো’টবেলা’য় চল’চ্চি’ত্রের প্রে’মে পড়েন জা’য়েদ খান। পি’রো’জপুর শহরে বা’সার পা’শেই জ’নতা সিনে’মা হল। স্কুল ফাঁ’কি’ দিয়ে প্রা’য়ই চলে যেতেন সিনে’মা হলে।

বিনা টি’কি’টে ছবি দে’খার জন্য হল মা’লিকে’র ছে’লের স’ঙ্গে ভাব জমা’ন। নতুন ছবি হ’লে এলেই তাঁর দেখা চাই। জা’য়েদ খান বললেন, ‘তখন থে’কেই চল’চ্চি’ত্রের নায়ক হও’য়ার স্বপ্ন দেখতে শুরু করি।’

ওয়া’সিম, সোহেল রানা, রুবেলের অ’ভিনয় খুব ভালো লা’গত জায়ে’দ খানের। প্রিয় শি’ল্পী’র মতো করে চুল কা’’টানো থেকে শুরু করে তাঁদের ‘ফ্যাশনও অনু’সরণ করতে’ন। এসএসসি পাস করে ১৯৯৫ সালে ঢা’কা আ’সেন।

ভর্তি হন ঢাকা সিটি কলে’জে। থাকতেন মধুমি’তা সি’নেমা হলের পেছ’নে বোনে’র বা’সায়। ঢাকায় এসেও নিয়’মিত ছবি দেখার সুযো’গ পে’য়ে গেলেন’।

উচ্চ মা’ধ্য’মিক পাস করার পর ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববি’দ্যালয়ের ইতিহা’স বিভাগে’। পাশাপাশি নায়’ক হ’ওয়ার স্ব’পূরণে’র জন্য এফডিসিতে যা’তায়াত শুরু হয় তাঁর। ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতি’যোগি’তায় অংশ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *