একটি দুইটি নয়, পাঁচ শতাধিক ছবির অভিনেতা ইলিয়াস কোবরা, এখন সময় কাটে কৃষি কাজ করে

মার্শাল আর্ট-নির্ভর সিনেমায় খল চরিত্রে অভিনয় করে দারুন পরিচিতি পাওয়া অভিনেতা ইলিয়াস কোবরা এখন কৃষি কাজ করে সময় কাটাচ্ছেন। হাতে সিনেমা না থাকায় টেকনাফের বাহারছড়ায় গ্রামের বাড়িতে বাগান পরিচর্যাসহ কৃষি কাজ করে সময় কাটাচ্ছেন বলে সমকালকে জানান কোবরা।

সাড়ে পাঁচ শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করা খল অভিনেতা ইলিয়াস কোবরার হাতে এখন সিনেমা নেই। তবে করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন শুটিং বন্ধ থাকার পর ফের শুরু হলে ‘বাহুবীর’ নামে একটি ছবির জন্য ডাক পড়েছিলো বলে জানালেন কোবরা।

মাত্র দুইদিন শুটিং করেই আবার ফিরে গেছেন টেকনাফে। কোবরা বলেন, ‘সিনেমার জন্য এখন খুব বেশি ডাক আসেনা। এখন তো সিনেমাই নির্মাণ হচ্ছে না। ছবির সঙ্কটের জন্য তো হলও একে একে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। তার উপর করোনা ভইরাস।

তাই বাহারছড়ায় পেপের বাগান পরিচর্যা করছি। বলতে পারেন কৃষি কাজ করছি। এর ফাঁকে সিনেমার জন্য ডাক পড়লে ঢাকায় ছুটে যাই।’ খল-অভিনেতা হিসেবে সিনেমার দর্শকের পরিচিত মুখ কোবরা একজন সাধারণ মানুষ হিসেবেও টেকনাফের মানুষের কাছেও বেশ জনপ্রিয়।

সেখানকার সাধারণ মানুষদের সঙ্গে মিলেমিশেই বর্তমান সময় পার হচ্ছে বলে জানান। একটা সময় গেছে নায়ক রুবেলের ছবি মানেই খল নায়ক হিসেবে থাকবেন ইলিয়াস কোবরা। রুবেল-কোবরা জুটির ছবি মানেই মার্শাল-আর্ট প্রিয় দর্শকদের কাছে বাড়তি আগ্রহ।

এফডিসিতে মাসের ২৫ দিনই শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকতে হতো তার। সেই কোবরাকে এফডিসিতে সর্বশেষ সরব দেখা গিয়েছিলো বছর খানেক আগে। সেটাও শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে। ২০১৯-২১ মেয়াদে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সেক্রেটারি পদে লড়েন তিনি।

তার প্রতিপক্ষ হিসেবে ছিলেন জায়েদ খান। ইলিয়াস কোবরা ১৯৮৭ সালে সোহেল রানা পরিচালিত ‘মারকশাহ’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে খল অভিনেতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। এরপর প্রায় সাড়ে পাঁচশ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

সূত্র: সমকাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.