ফেলে দেওয়া ৫ লাখ প্লাস্টিক বোতল কুড়িয়ে চোখ ধাঁধানো রিসর্ট বানালো ৪ যুবক

এই মুহুর্তে সারা বিশ্বেই প্লাস্টিক (plastic) বর্জ্য একটি বড় সমস্যা। মানুষের ফেলে দেওয়া প্লাস্টিক দূষণ ঘটাচ্ছে প্রকৃতিতে। পচনশীল না হওয়ায় বছরের পর বছর জীব জগতের ক্ষতি করে যাচ্ছে।

প্লাস্টিকের এই দূষণের হাত থেকে রেহাই পেতে প্লাস্টিক পুনর্নবীকরণই একমাত্র পথ বলে জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। এবার ফেলে দেওয়া প্লাস্টিক বোতল, রবার সহ একাধিক বর্জ্য ব্যাবহার করে চোখ ধাঁধানো রিসর্ট বানালো ৪ যুবক।

এই উদ্যোগের অন্যতম উদ্যোক্তা জোরাবর পুরোহিত বলেন, “২০১২ সাল থেকে আমি আন্দামান দ্বীপপুঞ্জে ডাইভিং ইন্সট্রাক্টর হিসাবে কাজ করছি। প্রথম দিন থেকেই, আমি দ্বীপে প্রচুর পরিমাণে প্লাস্টিকের বর্জ্য দেখলাম।

সুতরাং, আমি স্থির করেছি যে আমি যদি কখনও কোনও ব্যবসা শুরু করি তবে এটি এমন কিছু হবে যা পরিবেশের ক্ষতি করবে না’। যেমন ভাবা তেমন কাজ। অখিল বর্মা, আদিত্য বর্মা ও রোহিত পাঠককে সাথে নিয়ে তিনি তৈরি করে ফেলেছেন Outback Havelock নামের এই পরিবেশ বান্ধব রিসর্ট।

এই রিসর্ট তৈরি করার জন্য জোরাবার ও তার বন্ধুরা ফ্রেঞ্চ আর্কিটেকচার নিয়ে অনেক গবেষণা করেছিল। নির্মাণ সামগ্রী হিসাবে বালি এবং ধুলায় ভরা প্লাস্টিকের বোতলগুলি “ইটের চেয়ে 10 গুণ বেশি শক্তিশালী এবং জল প্রতিরোধী”।

জানিয়েছেন জোরাবার। তারা আন্দামানের বিভিন্ন ডাম্পিয়ার্ড থেকে বর্জ্য প্লাস্টিকের বোতল সংগ্রহ করেছিল এবং তাদের রিসর্টটির নির্মাণকাজ শুরু করে। “৫,০০,০০,০০০ প্লাস্টিকের বোতল ছাড়াও আমরা নির্মাণের জন্য ৫০০ কেজি রাবার বর্জ্য সংগ্রহ করেছি।

বোতলগুলি বিলাসবহুল কক্ষ তৈরির জন্য ব্যবহৃত হয়েছিল, রিসর্টে ফুটপাথ তৈরি করতে রাবার ব্যবহার করা হয়েছে, ” জানান জোরাবার। আউটব্যাক হ্যাভলকটিতে মোট নয় জন কর্মী রয়েছে। মহামারীর আগে, আমাদের প্রতিদিন 80 টিরও বেশি পর্যটক আসত এখানে। হোটেলের জন্য ১ কোটি টাকা খরচ করলেও এই মুহুর্তে তাদের টার্নওভার দেড় কোটির বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *