ল’জ্জিত দি’হানের পরিবার, রাখেননি কোনও আইনজীবীও, ই;মেইল বার্তায় যা বললেন দিহানের মা

দিহা’নের ভাই নিল’য় সর’কার তিনি বলেন, সকালে উঠে অ’ফি’সে চলে গিয়ে’ছি। বগুড়াতে আমা’’র নানা অ’’সু;স্থ, মা সেদিন সকালে নানাকে দেখ’তে বা’ড়ি থেকে বের হয়ে”ছেন।

আ;মা’র এক চাচা আ;বার ওই;দিনই মা;’রা যান। রা’জশা’হীতে জা’না’জা হ’য়েছে। আ’মা’র বাবা সে;খানে ছি;ন। বাসা সেদি;ন এক’দম ফাঁ”কা ছিল।

হঠাৎ দুপুর ১টা ২৫ মি;;নিটের দিকে দিহান আমাকে ফো;ন দিয়ে কাঁদো কাঁ;দো স্ব;রে কথা বলে। জীবনে ওকে আমি কখনও কা’ন্না করতে দেখিনি।

ফো;ন দিয়ে বলে, ‘ভাইয়া বাসায় বান্ধবীকে নিয়ে এসে;ছি;লাম। অ’;জ্ঞান হয়ে গেছে। হাস;পাতা’লে নিয়ে যাচ্ছি। তুমি আসো, তুমি ছাড়া আমা’কে কে;উ বাঁ’চাতে পারবে না।’

দি;হানের ভাই আরও বলেন, আমি ভয় পেয়ে যাই। তখনই আমা’র কর্মস্থল থেকে বের হয়ে এসেছি। দিহান বা;রবার ফো;ন দিচ্ছে ‘ভা;ইয়া তুমি দ্রু;ত আসো।’

পরে দুপুর ১টা ৫০-এর দিকে আ;বার ফোন করে। তখন বলে, ‘ভাইয়া ও তো মা;রা গেছে’। তখন আমি বলি, ‘কে মা;রা গেল ঠিক;ঠাক মতো বলো’। দিহান বলে, ‘তুমি হাস;পা;তা’লে চলে আসো দ্রুত।’

ই;মেইল বার্তায় দিহা;নের মা লিখেছেন, গত ৭ জানু;রি আমা’র বাসায় আ;মা’র ছে’লে ;দিহান ও ওর বা;ন্ধবী অরনা আমি;ন-এর ঘটনায় আ;মি হত;বাক। একজন মা ও নারী হিসেবে এ ধ;রনে;র ঘটনা মেনে নেওয়া খুবই ক’ষ্ট;’কর। আমরা ওর জন্য কোন আইনজীবীও নিয়োগ দেইনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *