অভিনেতা তৌসিফের বিরু’দ্ধে ত’রুণীর ৫ লাখ টাকা নেয়ার অ’ভিযোগ

Sabbir Rahman 0

ছোট পর্দার অ’ভিনেতা তৌসিফ মাহবুব তার নাটকের অ’ভিনেত্রী বানাবেন-এমন প্র’লোভনে বিভিন্ন সময়ে এক তরুণীর কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা নিয়েছেন বলে থা’নায় অ’ভিযোগ করা হয়েছে।

শনিবার সকালে শামসুন্নাহার কনা নামের এই তরুণী রাজধানীর হাতিরঝিল থা’নায় এমন অ’ভিযোগে একটি জিডি করেন। জিডিতে উল্লেখ করা হয়, অ’ভিনেতা তৌসিফ মাহবুবের স’ঙ্গে ফেসবুকে ১৮ মাস পূর্বে পরিচয় হয় শামসুন্নাহার কনার।

পরিচিত হওয়ার পর তিনি গত ছয় মাস পূর্বে ০১৬””৯৭৮৯০৯ এই নাম্বারে বিশ হাজার টাকা নেন তরুণীর কাছ থেকে। এরপর তৌসিফ তৃতীয় পক্ষ শাহরিয়া হোসেনের মাধ্যমে সোনালী ব্যাংক, সাহাপুর শাখা, চাটখিল, নোয়াখালী অ্যাকাউন্ট নং ৩৪১০০৪৪১ হিসাবের মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে আরো তিন লাখ বিশ হাজার টাকা নেন।

টাকা নেয়ার পর তৌসিফ তরুণীর স’ঙ্গে আর কোনো যোগাযোগ করেননি। তার ব্যবহৃত সবগু’লো নাম্বার বন্ধ করে দেন। এই বি’ষয়ে শামসুন্নাহার কনা বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, অ’ভিনেতা তৌসিফ মাহবুবের স’ঙ্গে প্রায় দুই বছর আগে ফেসবুকে আমা’র পরিচয় হয়।

এরপর তিনি আমাকে মডেল বানাবেন বলে বিভিন্ন সময়ে আমা’র কাছ থেকে প্রায় ৫ লাখ টাকা নেন। এই তরুণীর দাবি, অ’ভিনেতা তৌসিফের রিয়েল আইডি দিয়েই তাদের পরিচয়। তারা দুজনে ভিডিও কলে কথা বলেছেন।

প্রথম দিকে রিয়েল আইডি দিয়ে কথা হলেও পরে তৌসিফ ফেইক আইডি দিয়ে আমা’র সাথে কথা বলতো। সে সবসময় বলতো ওই আইডি দিয়ে কথা বললে তার সমস্যা হবে।

আর আমাকে অ’ভিনয় করাবে বলে বিভিন্ন সময়ে অনেক টাকা নিয়েছে। আমি অনেকবার দেখা করতে বললেও তিনি আমা’র সাথে দেখা করতেন না। পরে আমি আমা’র টাকা ফেরত চাইলে তিনি আমাকে ব্ল্যা’কমেইল করার চে’ষ্টা করেন। আমাকে সব জায়গা থেকে ব্লক করে দেন।

এই বি’ষয়ে কথা বলতে হাতিরঝিল থা’নায় যোগাযোগ করা হলে থা’নাটির ওসি সিরাজুল ইসলাম বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। তবে জিডির কপি এখনও আমা’র কাছে আসেনি। আসলে এ বি’ষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই বি’ষয়ে কথা বলতে অ’ভিনেতা তৌসিফ মাহবুবের স’ঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, আমা’র আইডি ভেরিফায়েড করা। কেউ যদি ভুল জায়গায় গিয়ে প্রতারণার শি’কার হয় সেটা তো আমা’র দেখার বি’ষয় নয়।

আর এখন এটাও শুনতে হচ্ছে যে, আমি মডেল বানানোর নামে ৫ লাখ টাকা নিয়েছি! আরও কত কী যে শুনতে হবে! আমি সাইবার ক্রা’ইমের স’ঙ্গে এই বি’ষয়টি নিয়ে কথা বলবো দ্রুতই।

এই অ’ভিনেতা আরও বলেন, ফেইক আইডির কারণে এরকম শুধু আমি না, অনেক তারকাই বিভিন্ন সময়ে বিভ্রা’ন্তিতে পরেছেন। এখন কেউ যদি আমা’র নাম করে ফেইক আইডির মাধ্যমে প্রতারণা করা সেই দায়ভার কি আমি নেবো? কিন্তু আমা’র মনে হয় কারও স’ঙ্গে কথা বলার আগে ভালো করে যাচাই করে নেয়া উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *