Breaking News
Home / অন্যান্য / বয়ফ্রেন্ডকে R15 বাইকের পিছনে বসিয়ে তুমুল গতিতে চালাতে গিয়ে অল্পের জন্য রক্ষা পেল প্রেমিক, ভিডিও ভাইরাল

বয়ফ্রেন্ডকে R15 বাইকের পিছনে বসিয়ে তুমুল গতিতে চালাতে গিয়ে অল্পের জন্য রক্ষা পেল প্রেমিক, ভিডিও ভাইরাল

Advertisement

বর্তমানে সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হয় নানা রকম ভিডিও। বিশেষ করে যেসব মানুষরা সুযোগের অভাবে তাদের প্রতি প্রদর্শন করার কোন অবসর পেতেন না, তারা সোশ্যাল মিডিয়াকে তাদের প্রতিভা প্রদর্শনের মঞ্চ হিসেবে ব্যবহার করছে।

Advertisement

মিডিয়ার শ’ক্তির সব থেকে বড় উদাহরণ হল রানু মন্ডল। ভবঘুরে হিসেবে ভিখা’রিদের সঙ্গে জীব’নযাপন করতেন তিনি, এইসময় ভাইরাল হয়ে যায় তার গ’লা’য় গাওয়া একটি ভিডিও “এক পেয়ার কা নাগমা হে”।

ছাড়া ভারতবর্ষ জুড়ে ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও, এর পরে আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। এরকম আরও উদাহরণ হলেন চাঁদমণি, বিপাশা দাস প্রভৃতি।

বর্তমানে এই কাজে এগিয়ে এসেছে বিভিন্ন ফে’সবুক পে’জ গুলিও। তারা তাদের পেজের মাধ্যমে অনেক প্রতিভা কে নিয়ে এসেছে বিশ্বের সামনে।

তবে শুধু ফেস’বুক পে’জ নয়, বর্তমানে স্নে’ক ভিডিও টিকটক প্রভৃতি নানা অ্যাপ এর মাধ্যমে মানুষ তার ভিডিও তৈরি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পো’স্ট করে, যা হয়ে যায় তুমুল ভাইরাল।

এই ভিডিও গুলোর মধ্যে যেমন শিক্ষামূলক নাচ-গান প্রভৃতির ভিডিও থাকে, তেমনি থাকে দারুণ মজার মজার ভিডিও। তবে এইসব স্বল্পদৈর্ঘ্যের ভিডিওগুলি তৈরীর ক্ষেত্রে মজার ভিডিও থাকার সংখ্যাটাই বেশি।

বর্তমানে সমস্ত মানুষ বিশেষ করে কিশোর কিশোরীরা এবং যুবক-যুবতীরা এইসব অ্যা’প ইউ’জ করে নিজেদের ভিডিও তৈরি করে ভাইরাল হয়। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় যে সব সময় মজাদার ভিডিও আপ’লোড হয় তা নয়, কিছু কিছু ভিডিও আমাদের সত্যি অবা’ক করে দেয়।

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি মেয়ে বাইক চালাচ্ছে, এবং একটি ছেলে তার পেছনে বসে আছে। শুধু তাই নয়, মেয়েটির বাইক চালানোর দ’ক্ষতা দেখে মু’গ্ধ হয়েছেন সবাই। বিশেষ করে এই মেয়েটিকে অনু’প্রেরণা বলা যায় সকলের কাছে।

বিশেষত মেয়েরা গাড়ি চালাতে ভ’য় পান, এই মেয়েটিকে দেখে তাদের শেখা উচিত। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে গেছে, মেয়েটির বাই’ক চালানোর প্রশং’সা করেছেন সবাই।

মেয়েরা যে এগিয়ে যাচ্ছে তা এই ভিডিওটি দেখে বোঝা যায়। মেয়েদের এরকম প্রগতিশীল হওয়াই উচিত। কমে’ন্ট বক্স ভরে গেছে নানা রকম কমে’ন্ট। বেশিরভাগ কমে’ন্ট এই মেয়েটিকে সমর্থন করেছেন দর্শকরা।

বর্তমানে ছেলে-মেয়ের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। সবকিছুই নির্ভর করে শেখার উপর। বিশেষ করে মেয়েরা পারেনা এমন কোন কাজ পৃথিবীতে নেই। আজকালকার দিনে মেয়েরা সব ক্ষেত্রেই ছেলেদের সঙ্গে সমানতালে কাঁ’ধে কাঁ’ধ মিলিয়ে চলছে। মেয়েদের সব ক্ষেত্রে আমাদের উৎ’সাহিত করা উচিত, যে জাতির মেয়েরা এগিয়ে আসবে সেই জা’তি তবে পৃথিবীতে শ্রেষ্ঠ আসন নেবে।

Advertisement

Check Also

একটি আস্ত সা’পকে গিলে খাচ্ছে একটি সবুজ রঙের ব্যাঙ, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

Advertisement সা’পের অন্যতম প্রিয় খাদ্য ব্যাং। সাধারণত দেখা যায় যেকোনো বড় ছোট সা’প খুব সহজে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *