প্রবাসীর সাথে বিয়ের নাটক সাজিয়ে ২৬ লাখ টাকা আ’ত্মসাত

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সৌদি প্রবাসীর সাথে বিয়ের নাটক সাজিয়ে ২৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অ’ভিযোগে জয়পুরহাটে পাঁচবিবিতে কনে ও তার বাবা-মাকে আটক করেছে পু’লিশ।

সোমবার গভীর রাতে পাঁচবিবি উপজে’লার মালঞ্চা গ্রাম থেকে ওই ৩ জনকে পু’লিশ আ’টক করে। আ’টককৃতরা হলেন- জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজে’লার মালঞ্চা গ্রামের অবসর প্রাপ্ত পু’লিশ সদস্য ইমদাদুল হক (৫৭), তার স্ত্রী রুবিনা বেগম ও তাদের মেয়ে কথিত বিয়ের কনে শবনম মুস্তারী এমি।

ঘ’টনার বিবরণে ও পু’লিশ সুত্রে জানা যায়, এমি’র সাথে ফেসবুকে পরিচয় হয় ল’ক্ষীপুরের রা’য়পুর উপজে’লার দক্ষিন চর মোহনা গ্রামের কাজী আয়াতুল্লার ছেলে সৌদি প্রবাসী যুবক কাজী হারুন সাগরের।

এক পর্যায়ে তাদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে মোবাইলের ভিডিও কনফারেন্সের এর মাধ্যমে বিয়ের নাটক সাজিয়ে দীর্ঘ ৪ বছরে সৌদি আরব থেকে ওয়েষ্টার্ন ইউনিয়ন ও বিকাশের মাধ্যমে ওই সৌদি প্রবাসী যুবকের কাছ থেকে ২৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় এমি ও তার মা-বাবা।

গত ১৫ ডিসিম্বর দেশে ফিরে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজে’লার মালঞ্চা গ্রামে কথিত শ্বশুর বাড়ি আসলে এমি ও তার মা-বাবা ওই বিয়ের কথা অ’স্বীকার করলে প্রমানাদিসহ পাঁচবিবি থা’নায় মা’মলা দা’য়ের করেন ওই প্রবাসী যুবক।

প্রাথমিক ত’দন্তে অ’ভিযোগ প্র’মানিত হওয়ায় পু’লিশ বাবা, মা ও মেয়েকে তাদের নিজ বাড়ি থেকে গ্রে’ফতার করে। এ ঘ’টনায় এলাকায় তোলপাড় চলছে।

পাঁচবিবি থা’নার অফিসার ইনচার্জ ফরিদ হোসেন করে জানান, ঘ’টনার স’ত্যতা স্বী’কার পাওয়ায় আ’টককৃতদের বি’রুদ্ধে থা’নায় মা’মলা হয়েছে এবং তাদেরকে কো’র্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *