৪ বছরের বাচ্চার অসাধারণ খোঁজ, মিলল বিলুপ্ত হওয়া ডাইনোসরের চিহ্ন

ডায়নোসর নিয়ে আকর্ষণ আজও রয়েছে আমা’দের মধ্যে। পৃথিবীর বুকে অতিকায় দানব আকৃতির এই প্রানী কিভাবেই বিলু’প্ত হয়ে গেল তা নিয়ে আজও চলছে একাধিক গবেষণা। যা থেকে উঠে এসেছে একের পর এক তত্ত্ব।

তা নিয়ে হয়েছে একাধিক বিতর্ক। তবে এর মধ্যেই এবারে ঘটল এক অদ্ভুত ঘটনা। ওয়েলসের সমুদ্র তীরে সযত্নে রক্ষিত ডায়নোসরের পায়ের ছাপ উ’দ্ধার করল এক ৪ বছরের শিশু।

সংবাদ মাধ্যমের তরফে জানা গিয়েছে লিলি ওয়েলডার নামক ওই ওই শিশু সমুদ্র তীরে হাঁটতে হাঁটতে আচমকাই উ’দ্ধার করেছিলেন ওই পায়ের ছাপ। ওই জায়গাতে কি ভাবে ডায়নোসর এর পায়ের ছাপ এল তা নিয়ে শুরু হয়েছে আকর্ষণ।

পাশপাশি ইতিমধ্যে ওই ছাপ নিয়ে শুরু হয়েছে গবেষণা। বিশেষজ্ঞদের তরফে জানানো হয়েছে ওই ছাপ থেকেই বোঝা যাব’ে কি ভাবে ২২০ মিলিয়ন বছর আগে ওই সকল ডায়নোসর হাঁটাচলা করত।

পাশপাশি গবেষণার ক্ষেত্রে এই বি’ষয়টি আরও গু’রুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে বলে মনে করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে ওই পায়ের ছাপ টি ছিল একটি ছোট পাথরের উপরে। আর সেটাই নজরে পরেছিল ওই ৪ বছরের শিশুটির।

এমনকি তা দেখে কিছুক্ষণের জন্য চমকে গিয়েছিলেন ওই শিশুটির অ’ভিভাবকেরাও। তারপরেই তাদের তরফে একাধিক বিশেষজ্ঞকে যোগাযোগ করা হয়। ইতিমধ্যে ওই পায়ের ছাপ যথেষ্ট ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।

পায়ের ছাপের মাপ ১০ সেন্টিমিটার ।আর তা দেখে অনুমান করা হচ্ছে ওই ডায়নোসরের উচ্চতা ছিল বেশ বেশি। যদিও বি’ষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে সাধারণ মানুষের মধ্যে শুরু হয়েছে আকর্ষণ।

ইতিমধ্যে ওই জীবাশ্মটি ওই জায়গা থেকে তুলে নিয়ে কার্ডিফের একটি মিউজিয়ামে নিয়ে গিয়ে রাখা হয়েছে। পাশপাশি বি’ষয়টি নিয়ে শুরু হয়েছে তীব্র আকর্ষণ। তবে আচমকা সমুদ্রের তীরে এই ধরণের ছাপ দেখতে পাওয়াতে অবাক হয়েছেন সকলেই। পাশপাশি এত বছর ধরে তা কিভাবে একই ভাবে ছিল তা নিয়েও দেখা গিয়েছে আকর্ষণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *