ভয়াবহ দুর্ঘটনা, স্টেশনের পাঁচিল ভেঙে বেরিয়ে এল মেট্রো, যেভাবে প্রাণ বাঁচাল তিমির লেজ

ভ’য়ানক মেট্রো দু’র্ঘটনা নেদারল্যান্ডে, কপাল জোরে রক্ষা পেলেন চালক। শেষ স্টেশনে না থেমে ট্রেনটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে স্টেশনের পাঁচিল ভেঙে বাইরে বেরিয়ে আসে। ঠিক যেন কোনও সিনেমা’র দৃশ্য। শুনতে রোমাঞ্চকর লাগলেও ঘটনাটি অত্যন্তই ভ’য়ানক।

ঘটনাটি ঘটেছে নেদারল্যান্ডের রটারড্যাম শহরে। জানা যায়, মেট্রোটি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়, এর জেরে শেষ স্টেশনে পৌঁছনোর পরেও তা প্ল্যাটফর্মে না থেমে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে থাকে।

এরপর স্টেশনের পাঁচিল ভেঙে বাইরে বেরিয়ে আসে। বাইরে এসে শূন্যে ভাসছিল ট্রেনটি, নেপথ্যে তিমির লেজ। হ্যাঁ, একটি তিমির লেজের জেরেই ট্রেনটি নীচে পড়ার থেকে রক্ষা পায়। এই তিমির লেজই প্রাণ রক্ষা করে চালকের।

সূত্রের পাওয়া খবর অনুযায়ী, ২০ বছর আগে ওই মেট্রো স্টেশনের কাছে একটি পার্কে দুটি তিমি মাছের শিল্প স্থাপত্য তৈরি কড়া হয়। এই স্থাপত্যের বিশেষত্ব হল ওই দুই তিমি মাছের দৈত্যাকার লেজ। পাঁচিল ভেঙে বেরিয়ে আসার পর ট্রেনের সামনের দিকের বগিটি আশ্চর্যজনকভাবে ওই তিমি মাছের লেজে আট’কে যায়, এর ফলে ট্রেনটি নীচে পড়ে যেতে পারেনি।

দু’র্ঘটনায় ক্ষয়ক্ষ’তি হলেও বড় ধরণের কোনও ক্ষ’তি হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। প্রাণহানিরও কোনও খবর নেই। বেঁচে গিয়েছেন ট্রেনের চালকও। তিনি এখনও পর্যন্ত রীতিমতো ভয় পেয়ে আছেন। জানা গিয়েছে যে ট্রেনে কেবল চালকই ছিলেন, কোনও যাত্রী ছিল না।

ঘটনার পরেই সেখানে উপস্থিত হন ইঞ্জিনিয়ার, আর্কিটেক্ট ও বিশেষজ্ঞেরা। জরুরী পরিষেবার ভিত্তিত্তে ট্রেনটিকে স্টেশনে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করা হয়। মেট্রোটি কীভাবে নিয়ন্ত্রণের বাইরে গেল, এ নিয়েও খতিয়ে দেখা হবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.