আঙুর না-কি কিসমিস কোনটি স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী?

আঙুর শুকিয়ে তেরি করা হয় কিসমিস। তবে দু’টোর পুষ্টিগুণ কিন্তু ভিন্ন। তাই আঙুর ও কিসমিসকে এক ভেবে ভুল করবেন না!আঙুর শুকানোর সময়ই পুষ্টিগুণ বদলে যায়। তাই কারও জন্য আঙুর ভালো আবার কারও জন্য কিসমিস।

জেনে নিন আপনি কোনটি খাবেন?  কিসমিস শুকিয়ে তৈরি করা হয় বলে এতে শর্করার পরিমাণ বেশি থাকে। এজন্য ডায়াবেটিসে আক্রান্তদের জন্য ক্ষতিকারক হয়ে উঠতে পারে।

আবার আঙুর খাওয়ার ক্ষেত্রেও ডায়াবেটিস রোগীদের চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। আঙুরের চেয়ে কিসমিসে ক্যালোরির পরিমাণ বেশি। আঙুর শুকানোর পর এর মিষ্টতা বেড়ে যায় অনেকখানি।

তাই এতে ক্যালোরির পরিমাণও বেশি।ক্যালোরি বেশি হলেও ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে কিসমিস।শরীর ভাল রাখতে, দূষিত বস্তু শরীর থেকে বের করে দিতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট অত্যন্ত প্রযোজনীয়।

আঙুরের চেয়ে কিসমিস অনেক বেশি শুকনো বলে, এতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের ঘনত্বও প্রায় ৩ গুণ বেশি। প্রত্যেকের শরীরের ধরন আলাদা। সে হিসেবে কোনটা আপনার জন্য ভালো, সেটা বুঝে নিতে হবে।

যদি অ্যান্টি-অক্সিডেন্টকে গুরুত্ব দিতে চান, তা হলে কিসমিস খেতে পারেন।অন্যদিকে উচ্চ র’ক্তচাপ বা ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রে চিকিৎসক বা পুষ্টিবিদের পরামর্শ নিয়ে আঙুর বা কিসমিস খেতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.