Breaking News
Home / অন্যান্য / রাস্তার পাশে বা-থ-রুম করছিলেন যুবক, পিছনে গিয়ে বেলুন ফা-টিয়ে জো-রে শব্দ করতেই উ-ল্টে প-ড়লেন যুবক, ভাইরাল ভিডিও!

রাস্তার পাশে বা-থ-রুম করছিলেন যুবক, পিছনে গিয়ে বেলুন ফা-টিয়ে জো-রে শব্দ করতেই উ-ল্টে প-ড়লেন যুবক, ভাইরাল ভিডিও!

Advertisement

সোশ্যাল মিডিয়ার বর্তমান প্রজন্মের এমন এক ধরনের ধা-রালো হা-তি-য়ার যে হাতিয়ার এর ব্যবহার কমবেশি আমরা প্রত্যেকেই করেছি । এই সোশ্যাল মিডিয়া হাত ধরে বিভিন্ন ধরনের ঘটনা বিভিন্ন সময়ে আমাদের সামনে উঠে আসে ।

Advertisement

কখনো নাচ কখনো গান কখনো অভিনয় দক্ষতা দিয়ে জয় করে নেয় আমাদের মন অনেকেই । কিন্তু এর পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতে বিভিন্ন ধরনের শিক্ষামূলক ভিডিও আমাদের সামনে উঠে আসে যেখান থেকে আমরা অনায়াসে কিছু ভালো শিক্ষা নিতে পারি।

সম্প্রতি ফেসবুকে তথা ইউটিউবেও একটি ভিডিও যথেষ্ট পরিমাণে ভাইরাল হচ্ছে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে একটি ছেলে একটি বেলুনের সাহায্যে ভ-য় দেখাচ্ছিলো রাস্তায় থাকা বিভিন্ন যানবাহনের মালিককে ।

অর্থাৎ সে কখনো কোনো রিক্সার পেছনে গিয়ে একটি বেলুন ফা-টিয়ে দি-য়ে চলে যাচ্ছিল । যার ফলে সেই রিক্সায় থাকা ব্যক্তির ভাবছিল যে তার চা-কা পাং-চার হয়ে গেছে ম তাই সে রিকশা থামিয়ে বারবার দেখছিল আদতে চা-কা পাং-চার হয়েছে কিনা ।

কিন্তু সম্প্রতি যে ঘটনাটি সবথেকে হাসির সেটি হল যে রাস্তার ধারে এক যুবক টয়লেট করছিলেন । তখনই পিছন থেকে জোরে বে-লুন ফা-টিয়ে দেই এক যুবতী। ফলে যুবকটি ভ-য় খে-য়ে উ-ল্টে প-ড়ে যা-ই সেখানে।

তবে পরবর্তী ক্ষেত্রে জানানো হয় যে সেটি প্রাঙ্ক ভিডিও ছিল।সাধারণত আগে থেকে ক্যামেরা ঠিক করে রেখে ইচ্ছাকৃতভাবে এই ধরনের ঘটনা ঘটানো কে প্রা-ঙ্ক বলে সামাজিক মাধ্যমের ভাষায়।

এই ধরনের ভিডিও করার আগে তাদেরকে অত্যন্ত সাবধানতা অবলম্বন করতে হয় । কারণ কোনো কারণে ভিডিও এদিক থেকে ওদিক হয়ে গেলে কপালে জু-টতে পা-রে বে-ধ-ড়-ক মা-র। কখনো কখনো এমন কি কোন কোন ভিডিওতে সে রকম ঘটনা ঘটে যদিও । যদিও সমস্ত ভিডিওতে থাকে প্রচুর কমেন্ট, ভিউজ এবং তার সাথে সাথে দ-ম ফা-টা হাসি ।

Advertisement

Check Also

সমুদ্রের ধারে বড় মাছের গর্ত থেকে মাছ বেরোতেই ট’পাট’প মু’খে পু’রে নিচ্ছে বড় কচ্ছপ, তু-মু’ল ভাইরাল ভিডিও!

Advertisement সংগ্রামশীল এই জীবনে আমাদেরকে প্রতিনিয়ত কিছু না কিছু উপলব্ধি করতে শেখায় । শেখায় যে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *