মঞ্চে গান গাইতে উঠে গানই ভুলে গেলেন রানু মন্ডল, হাসলো সমস্ত দর্শক, তু-মুল ভাইরাল ভিডিও

Sabbir Rahman 0

সোশ্যাল মিডিয়ার গুনে প্রকাশ্যে আসার রানু মন্ডলের কথা প্রায় সকলেরই মনে রয়েছে। খুব সহজ ছিল না রানাঘাট স্টেশন থেকে বলিউডের সংগীতশিল্পীর যাত্রাপথ টি। কিন্তু তাতেও তিনি অসাধারণ সাফল্য অর্জন করেছেন।

হয়তো নিজের অ-হং-কা-র-ব-শত আজকে তিনি অনেকটাই অন্ধকারে হারিয়ে গিয়েছেন, তবে তার গাওয়া গান-গু-লি কিন্তু এখনো অবধি কিন্তু দর্শকদের মন জয় করে রেখেছে।

মেয়ের দ্বারা পরিতক্ত রানু মন্ডল স্টেশনে দিন কাটালেও নিজের সংগীতের মাধ্যমে পরিচিতি লাভ করেন। অতীন্দ্র চক্রবর্তী নামক এক 24 বছর বয়সী ইঞ্জিনিয়ার রানুর গানকে রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়ায় মানুষের সামনে উ-ন্মুক্ত করে দেন।

তার গানের গলা মুগ্ধতা লাভ করতে করতে বলিউড অব্দি পৌঁছে যায়।তারপর হিমেশের পরিচালনায় রানুর গলায় রেকর্ড করা নতুন গান সবার কাছে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।গানটি প্রকাশ্যে আসার পর অনেক অনুষ্ঠানেই শুনতে পাওয়া যায় প্রতিনিয়ত।

নিজের অস্বাভাবিক মন্তব্যের জন্য এরপর রানু মন্ডল বি-তর্কেও জ-ড়ান।ঠিক যতটা সাহায্য তাকে করেছিলেন অতীন্দ্র চক্রবর্তী ঠিক ততটাই সাহায্যের হাত তিনি পেয়েছেন হিমেশ রেশমিয়ার কাছ থেকে।তেরি মেরি পর হিমেশের সাথে আরো একটি গান রেকর্ড করছেন তিনি।

তবে সম্প্রতি রানু মন্ডল কে নিয়ে যে খবরটি সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে সেটি হল শোনা যাচ্ছে পুনরায় আবার আগের জীবন যাপন করছে অর্থাৎ ভি-ক্ষা ক-রে দি-ন চা-লাচ্ছে । কিন্তু এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়াতে তার একটি ভিডিও ব্যা-পক পরিমাণে ঘোরাফেরা করছে ।

যদিও ভিডিওটি অনেক পুরনো তবুও এখনো পর্যন্ত তেমন ভাবে পুরনো হয়ে ওঠেনি নেটদুনিয়া নেটিজেনদের কাছে । ভিডিওতে দেখা যায় একটি অনুষ্ঠানে রানু মন্ডল কে গান গাইতে বলা হয় এবং সে কিছুক্ষণ থাকার পর বলে ‘ও মাই গড ফকগেট ইট’

অর্থাৎ সে ভু-লে গেছে এরপর শু-রু হ-য় ব্যা-পক পরিমাণে সমালোচনা এবং ভিডিওটি পুনরায় মা-থা-চা-ড়া দিয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে এবং জনগণকে পুনরায় আগের এভাবে সাহায্য করেছে এই ভিডিওটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.