আরও সস্তা, রেকর্ডের থেকে ১১,০০০ টাকার কম সোনার দাম

v
করো’নাভাইরাস টিকা এবং আর্থিক প্যাকেজের ফলে অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর পথ প্রশস্ত হয়েছে। এমনই ধারণা থেকে বেড়েছে ঝুঁকি নেওয়ার প্রবণতা। তার জেরে ম’ঙ্গলবারও ভারতীয় বাজারে পড়ল সোনার দর।

এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম ০.৪৬ শতাংশ বা ২০৮ টাকা কমে দাঁড়িয়েছে ৪৫,১০০ টাকা। এক কেজি রুপোর দাম ১.০৩ শতাংশ বা ৮৯৭ টাকা কমে হয়েছে ৬৯,৫৬২ টাকা।

গত বছর ৭ অগস্ট ১০ গ্রাম সোনার দর রেকর্ড ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছিল। তারপর থেকে সোনার দাম অনেকটা নীচে নেমে গিয়েছে। আপাতত রেকর্ড দরের থেকে ১০ গ্রাম সোনার দর ১১,৯০১ টাকা বা ২০ শতাংশ কমে গিয়েছে।

একইভাবে ৭ অগস্ট এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম পৌঁছে গিয়েছিল ৭৭,৮৪০ টাকায়। সেখান থেকে অনেকটা পড়ে গেলেও ফের ৭০,০০০ টাকার ঘরে পৌঁছেছিল রুপোর দাম। তবে আপাতত এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম ১০,৪২১ টাকা কম পড়ছে।

বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, সোনার অনেকটা কমে যাওয়ায় ক্রেতারা আবার কিছুটা বাজারের দিকে ফিরিয়ে তাকিয়েছেন। বাড়ছে হলুদ ধাতুর চাহিদা। তার ফলে এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার ৪৪,৫০০ টাকা থেকে ৪৪,৬০০ টাকায় সহায়তা থাকছে।

তবে অনেকের বক্তব্য, চলতি বছর সোনার দাম বাড়তে থাকবে। আর সেই ধা’রার একবার শুরু হলে দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়বে। এমনকী ১০ গ্রাম সোনার দাম ৬২,০০০ টাকার দরে পৌঁছে যেতে পারে।

অন্যদিকে, ভারতীয় সময় অনুযায়ী সকাল ৬ টা ১৬ মিনিটে বিশ্ব বাজারে এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ০.২ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১,৭২৬.৮৪ ডলার। আর মা’র্কিন গোল্ড ফিউচার্সের দর ০.১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১,৭২৩.৮ ডলার। গত শনিবার ১.৯ ট্রিলিয়ন ডলারের আর্থিক প্যাকেজ পাশ করেছেন হাউজ অফ রিপ্রেজেন্টেটিভের আইনপ্রণেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *