কঙ্গোয় সোনার পাহাড়! দখল নিল সরকার

Sabbir Rahman 0

ক’ঙ্গোয় আবি’ষ্কার হল সোনার পাহাড়! সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে এমনই দাবি করা হয়েছে। ক’ঙ্গোর দক্ষিণ কিভু প্রদেশে এই সোনার পাহাড়ের খোঁজ মেলার পর থেকেই সেখানে ভিড় জমাচ্ছেন বহু মানুষ।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, অনেকেই পাহাড় খুঁড়ে সোনা নিয়ে যাচ্ছেন। ক’ঙ্গো সরকার অবশ্য খননকার্য নি’ষি’দ্ধ করে দিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বহু গ্রামবাসী সোনার পাহাড়ে উঠে মাটি খুঁড়ে সোনা বের করে বাড়ি নিয়ে যাচ্ছেন।

অনেকেই ধুলো ঝেড়ে সোনা বের করার চেষ্টা করছেন। দক্ষিণ কিভু প্রদেশের মন্ত্রী ভেনান্ত বুরুমি মুহিগিরওয়া জানিয়েছেন, ‘দক্ষিণ কিবু প্রদেশের রাজধানী বুকাভু থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে লুহিহি অঞ্চলে সোনার সন্ধান পাওয়ার পর থেকেই বহু মানুষ সেখানে গিয়ে মাটি খুঁড়ে সোনা বের করা শুরু করেন।

সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশিকা জারি করে ওই গ্রামে সব ধরনের খননকার্য নি’ষি’দ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশিকা জারি না হওয়া পর্যন্ত সব খননকারী, ব্যবসায়ী, সশস্ত্রবাহিনীর সদস্যদের ওই গ্রাম ছেড়ে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

আফ্রিকার দেশগু’লিতে সোনার খনি আবি’ষ্কার নতুন ঘটনা নয়। অতীতে অনেক দেশেই সোনা পাওয়া গিয়েছে। এবার ক’ঙ্গোতেও সোনা পাওয়া গেল। এ বি’ষয়ে মন্ত্রী জানিয়েছেন, সরকারি বিধি মেনেই যাতে খননকার্য চালানো হয়, সেটা নিশ্চিত করার জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

সেই কারণেই সাধারণ মানুষের সোনা উত্তোলনের উপর নিষে’ধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকেই খননকার্য চালানো হবে। গত বছর রাষ্ট্রপুঞ্জের একটি বিশেষজ্ঞ দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ২০১৯ সালে উত্তর কিভু, দক্ষিণ কিভু ও ইতুরি প্রদেশ থেকে সরকারিভাবে ৬০ কেজি সোনা পাওয়ার কথা বলা হয়।

কিন্তু রফতানি করা হয় ৭০ কেজিরও বেশি সোনা। ফলে স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে, যত সোনা পাওয়া গিয়েছে, তার বেশিরভাগটাই সরকারিভাবে নথিব’দ্ধ হয়নি। সেই কারণেই এবার সক্রিয় হল সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *