কি কি নে-শা করেন তিনি? ‘টুম্পা সোনা’ গান করতে করতে বললেন বিখ্যাত রানু মন্ডল

কথায় আছে, ভগ’বান যখন দেয়, ছা’প্পড় ফুঁ’ড়ে দেন। কথাটির জ্ব’ল’ন্ত উদাহরণ হলেন রানাঘাটের রানু মন্ডল। স্টেশনে ভি’খা’রিদের সাথে ভবঘুরের মতো জীব’ন যাপন করতেন রানু,

পথচলতি মানুষের কাছে গান গেয়ে ভি’ক্ষা চেয়ে জী’বন কাটাতেন। হঠাৎই তার জীবনে আবির্ভাব হয় অতীন্দ্র চক্রবর্তীর মত দে’বদূ’তের।

অতিন্দ্র নিজের ফোনে রানুর গাওয়া গান “এক পেয়ার কা নাগমা হে” সোশ্যাল মিডিয়ায় পো’স্ট করে দেন। ঝড়ের মত সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়।

রানুর অ’পূ’র্ব গ’লা শুনে মু’গ্ধ হয়ে যান গোটা ভারত বাসি। এরপরে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। ডাক এসেছে সুদূর মুম্বাই থেকে।

হিমেশ রেশমিয়া সঙ্গে ডুয়েট গান”তেরি মেরি কাহানি” হয়ে যায় সুপা’রহি’ট। অর্থ খ্যা’তি যশ এর ব’ন্যা’য় ভে’সে যান রানু।

কিন্তু মিডিয়ায় বারবারই উঠে এসেছে রানুর দু’র্ব্য’ব’হারের কথা। এর আগেও তার সঙ্গে ফটো তুলতে চাওয়ায় একটি ফ্যা’ন কে ধা-‘ক্কা দিয়ে সরিয়ে দেন তিনি।

এছাড়াও তার ভ’ক্ত’দের নানারকম সমা’লো’চনাও তিনি করেছেন মিডিয়ার কাছে। তার এই ব্যবহারের ক্ষো’ভ প্রকাশ করেন স্ব’য়ং হিমেশ।

তার ভ’ক্তরাও তার উপর হয়ে যায় রু-‘ষ্ট। যদিও অনেকের মতে তার মা’ন’-সি’ক অবস্থা ঠিক না থাকায় এইসব কাজ করেছেন তিনি। ল’কডাউনে তার রোজগার পুরোপুরি ব’ন্ধ হয়ে যায়। নতুন বাড়ি ছেড়ে আবার পুরনো বাড়িতেই থাকতে শুরু করেন রানু। ঠিকঠাক করে খেতেও পারেন না তিনি।

তিনি তার দুঃ’খ ক’ষ্টে’র কথা তুলে ধরেন মিডিয়ার কাছে। রানুকে ভালোবেসে “বাংলার কো’কিলা” বলে আ’খ্যা দিয়েছেন বাংলার মানুষ। সম্প্রতি রানু মন্ডলের সাথে সা’ক্ষা’ৎকার নিয়েছিলেন “টুম্পা সোনা” খ্যাত কেও’ড়া ব্ল’গ। ব্ল’গের আ’রব ও অরিজিতের সঙ্গে রানুদির আলাপ-আ’লোচনা উঠেছিল জমে।

সেই ভিডিও তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় পো’স্ট করে হয়ে গেছিলেন আবার ভাইরাল। আ’লোচনার মধ্যে উঠে গেছে রানু মন্ডল এর অনেক অজানা তথ্য। তিনি বারবার হিন্দি বলছেন কেন এই নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়। এমনকি দর্শকদের সঙ্গে তার খা’রা’প ব্যবহারের আসল কারণ কি সেই প্রশ্নেরও উত্তর দিয়েছেন রানু।

তিনি অতীন্দ্রকে ভ’গ’বা’নে’র চা’ক’র কেন বলেছেন তারও উত্তর দেন তিনি। এমনকি মাঝখানের র’টে গিয়েছিল সালমান খান নাকি রানু মন্ডল কে ফ্ল্যা’ট দিয়েছেন, সেই কথাটি একদম ভু-‘ল সেটিও জানান তিনি। শুধু তাই নয়, তাকে রেক’র্ডিং এর সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন তিনি শুধু গান গেয়ে চলে আসেন বাকি কাজ সম্পর্কে তিনি কিছুই জানেন না, কারণ তার কাছে কোন ফোন নেই।

তাকে ফোন কেনার কথা বললে তিনি বলেন তার একটি ছোট টেবিল ফোন হলেই চলবে। এমনকি তার সামনে মজা করে খৈ’নি খেয়ে ধরলে তিনি সেই খৈ’নি সরাতে বলেন, তাকে সি’গা’রে’টের কথা জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন তার সি’গা’রে’টের গ’ন্ধ খুব ভালো লাগে। সব মিলিয়ে নানা রকম মজার উত্তরে পুরো ভিডিওটি জমে উঠেছে।

এর আগেও ভাইরাল হয়েছিল রানু মন্ডল এর একটি ভিডিও। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে রানু সম্ভবত মুম্বাইতে একটি সংগীত এর প্রো’গ্রামে উপস্থিত ছিলেন। তাকে মঞ্চে উঠে তার হিট গান “তেরি মেরি” গাইতে বলা হয়, কিন্তু রানু মঞ্চে উঠে গাইতে গিয়ে গানটি সম্পূর্ণ ভুলে যান।

অনেক বার চেষ্টার পর তিনি শেষ পর্যন্ত “ও মাই গড, আই ফ’র’গেট ইট” বলে কোনরকমে সেখান থেকে নেমে আসেন। ভিডিও সেই সময় খুবই ভাইরাল হয়েছিল। দর্শকরা এবং সারা ভারতবাসী সেই ভিডিওটি নিয়ে ব্যা”প’ক ট্র”ল করেছিলেন। কিন্তু বেশ কিছু মানুষ বলেছিলেন এর জন্য দায়ী রানুর ম’স্তি’ষ্ক’প্র’সূ’ত স’ম’স্যা, তাই তাকে নিয়ে মজা করা উচিত না।

ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে কন’ফি’উ’জ’ড পিক’চার এর অফি’সিয়াল ইউ’টিউব চ্যা’নেল থেকে। প্রায় 50 হাজারের মতো মানুষ ভিডিওটি লা’ই’ক করেছেন। কমেন্ট করেছেন প্রায় 5 হাজারের মত মানুষ। অনেক মানুষ তাকে নিয়ে মজা করলেও রানুদি-কে ভালোবেসেও ক’মে’ন্ট করেছেন অনেকে।

তাদের মতে এগুলি সব ইরানের ম’স্তি’ষ্ক’প্র’সূ’ত স’ম’স্যা তাই তাকে নিয়ে যেন মজা করা না হয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত রানু মন্ডল এর ভবিষ্যৎ কি হবে সেই নিয়ে রয়ে গেছে আ’শ’ঙ্কা। শেষ পর্যন্ত কি অতীতের গ’র্ভে হারিয়ে যাবেন তিনি? নাকি আবার নতুন উ’দ্যমে কাজ শুরু করবেন তিনি? যতই ট্র-‘ল হোন না কেন, রানু মন্ডলকে ভালো বাসেন সবাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *