জন্ম’দোষ কা’টাতে নিজের ছাত্রকেই বিয়ে করলেন শিক্ষিকা!

জন্মকুণ্ডলীতে দোষ রয়েছে। আর তা কা’টাতে পুরোহিতের নির্দেশে নিজেরই এক নাবালক ছাত্রকে বিয়ে করলেন এক গৃহশিক্ষিকা। ঘটনাটি ঘটেছে ভা’রতের পাঞ্জাবের জালন্ধরের বসতি বাওয়া খেল এলাকায়।

জন্মকুণ্ডলীতে মাঙ্গলিক দোষ পাওয়া যায় ওই নারীর। এমতাবস্থায় তার বিয়ে নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠে ওই নারীর পরিবার। এজন্য পুরোহিতের দ্বারস্থ হয় তারা। তিনি জানান, এক নাবালকের সঙ্গে প্রতীকী’ বিয়ে করলে এই দোষ কা’টানো সম্ভব।

তাই বিয়ে করতে নিজের ক্লাসের ১৩ বছরের এক কি’শোরকে বেছে নেন ওই নারী। তিনি ওই কি’শোরের বাড়িতে জানান, পড়াশোনার জন্য শি’শুটিকে তার বাড়িতে এক সপ্তাহ থাকতে হবে।

পরে ছে’লেটি তার বাড়ি ফেরার পর এই ঘটনা জানাজানি হয়। এরপর ওই কি’শোরের অ’ভিভাবকরা বসতি বাওয়া খেল থা’নায় অ’ভিযোগ দায়ের করে।ওই কি’শোর জানায়, তার শিক্ষিকার পরিবার তার সঙ্গে জবরদস্তি বিয়ের বিভিন্ন প্রথা পালন করে। পরে তার শিক্ষিকার হাতের চুড়ি ভেঙ্গে তাকে বিধবা ঘোষণা করা হয়। এমনকি শোক অনুষ্ঠানও করা হয়।

অ’ভিযোগ দায়েরের পর থা’নায় যান ওই নারী। তিনি বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন। অ’ভিযোগ তুলে নিতে কি’শোরের পরিবারকে চাপও দেয়া হয়।এদিকে দুই পরিবারের বোঝাপড়ায় অ’ভিযোগ তুলে নেয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে স্থানীয় স্টেশন হাউস অফিসার গগনদীপ সিংহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *