বড় হয়ে ছেলে কী হবে? আগেই ঠিক করলেন শাকিব-অপু

Sabbir Rahman 0

তারকাদের সন্তানদের নিয়ে আ’লোচনা-সমালোচনা থাকে শীর্ষে। সবা’রই আ’গ্রহ থাকে বড় হয়ে তার’কা’দের স’ন্তানরা প্রফে’শন হিসেবে কী বেছে নেবে তা জানার। যদিও দেখা যায় বেশি’রভাগ তারকা দ’ম্প’তির সন্তান যেন জন্মে’র পর থেকে’ই ‘তারকা’ বনে যা’ন।

তাইতো ছোট থেকেই তা’দের ‘নিয়ে বাড়তি আ’গ্রহ থাকে ভ’ক্তকু’লের। তেমনি বাংলা’দেশের তারকা দম্পতি শাকিব খান-অপু বিশ্বাস পুত্র আব্রাম খান জয়। ভক্তদের বাড়তি কৌ’তূ’হল রয়েছে জয়কে নিয়েও।

জন্মসূ’ত্রেই আব্রা’ম খান জয় তারকা। বলাবা’হু’ল্য দেশের একমা’ত্র জনপ্রি’য় স্টার কিড সে। এর আগে কোনো তারকার স’ন্তান এতো জনপ্রি’য়তা পায়নি। জয়ে’র নামে র’য়েছে ফেসবুক পেজ। সেখানে লা’খ লাখ মানুষ তাকে অনু’সরণ করে। সিনে’মা’ভিত্তি’ক গ্রু’পগুলো’তেও তাকে নিয়ে চর্চা হয় নিয়মিত।

তেমনি জয় সম্পর্কে জা’নার আগ্রহ ‘কেই ভক্ত’দের’ মনে প্র’শ্ন জে’গেছে- জয় বড় হয়ে কী হবে? এ প্রসঙ্গে জা’নতে চাইলে অপু বিশ্বাস গণ’মাধ্য’মকে বলেন, ‘আমি চাই আমার স’ন্তান সুশিক্ষায় মানুষের মতো মানুষ হোক। যেন পৃথিবী’তে আলো ছড়া’তে পারে।

এক’জন সচেতন মা হি’সেবে আমি তার উপর আ’মার কোনো চাওয়া চা’পিয়ে দি’তে চাই না। বড় হয়ে জয় নি’জেই সি’দ্ধা’ন্ত নেবে সে কী হবে। তারপরও মনে মনে এ’কটা ইচ্ছে আছে। এই ইচ্ছে’টার কথা জয়’কে বলবো। তার যদি ভা’লো লাগে তবেই সে আমার ই’চ্ছে পূরণ করবে, না হলে নয়।’

অপু আরো ব’লেন, ‘তবে এটি আ’মার ইচ্ছে বা স্বপ্ন নয়। এটা আ’মার সবচে’য়ে প্রিয় মানুষ মায়ে’র চাওয়া। মা সব’স’ময় চাইতেন জয় বড় হয়ে বি’খ্যাত ডা’ক্তার হবে। মা যেহে’তু হা’র্টের রো’গী ছি’লেন তাই তিনি চাইতেন জয় দেবি শেঠির মতো জগৎবি’খ্যাত ডা’ক্তার হো’ক।

ডা’ক্তা’র হয়ে মানুষে’র সেবা ক’রুক। মা এই কথাটা প্রায়ই বলতে’ন। তখনো জানতাম না মা এত তাড়া’তাড়ি আমা’দের ছেড়ে চলে যাবেন। মায়ে’র এই স্বপ্নে’র কথা আমি জয়’কে ব’লবো।’ এদিকে শাকিব খান এবারের জন্ম’দিনে ‘জয়কে নিয়ে তার প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন, ‘আমার এই ছোট্ট জীবনে ভালো’বাসা, সম্মা’ন, স’ম্মাননা সবকিছু পেয়েছি।

আ’লহা’মদুলিল্লাহ এখন পর্যন্ত আমার জী’বনের স’বচে’য়ে বড় অ’র্জন তুমি- আমার ‘জয়’ বাবা। ইনশা’আ’ল্লাহ এ’কদিন তুমি আ’মার চেয়েও সফল এবং অনে’ক ভালো একজ’ন মা’নুষ হবে। ছাড়িয়ে যাবে বাবার স্বপ্নে’র স’কল সী’মানা।’

২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর অপুর কো’লজু’ড়ে ‘আসে জয়। সে এখন ব’সুন্ধ’রার ইন্টা’রন্যা’শনাল স্কু’লের শিক্ষার্থী। পড়া’শো’নাতেও যথেষ্ট ম’নোযো’গী সে। এরই মধ্যে স্কুলের সহপাঠী ও অভি’ভাবক’দের দৃষ্টি কেড়ে’ছে জয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *