বিদায় বেলায় বউয়ের কা-ন্না দেখে হাউ মাউ করে কেঁ-দে ফেললেন নতুন বর, তু-মুল ভাইরাল ভিডিও!

না জানি কত কত অ-বাক করার মতন ঘটনার সাক্ষী আমাদের এই সোশ্যাল মিডিয়া । সোশ্যাল মিডিয়া মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন ধরনের ঘটনা বিভিন্ন সময় দেখে থাকি যা আমাদের কখনো কখনো অ-বাক করে তোলে ।

তার পাশাপাশি করে তোলে হ-ত-ভ-ম্ভো এবং বি-স্মিত। এই সোশ্যাল মিডিয়ার হাত ধরে আমরা যেমন আদিবাসী সম্প্রদায়ের চাঁদ মনিকে উঠে আসে দেখা যায় তেমনই ঠিক দেখা যায় রানাঘাটের স্টেশন চত্বরে গান গাওয়া রানু মন্ডল কে।

যিনি রাতারাতি হয়ে গিয়েছিলেন স্টার তবে আজকে কোন রানাঘাটের রানু মন্ডল বা আদিবাসী সম্প্রদায় চাঁদনীর কথা বলতে আসিনি । বলতে এসেছে এক ধরনের বিরল ঘটনা যা শুনলে আপনিও অ-বাক হ-বেন তার পাশাপাশি শি-উরে উ-ঠবেন ।

বর্তমান যুগে সামান্য ক্লা-ন্তি দূ-র করতে আমরা মুখ বুঝেছি সোশ্যাল মিডিয়াতে । অর্থাৎ আমরা যত দিন যাচ্ছে ততই যেন নির্ভরশীল হয়ে পড়ছি সোশ্যাল মিডিয়ার উপর ।

এক মুহূর্ত চলতে পারছি না সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়া কাজেই জীবনের প্রতিটা আনন্দ সুখ-দুঃ-খ রা-গ অ-ভি-মান সমস্ত কিছু খুঁজে নিতে চাই সোশ্যাল মিডিয়ার মধ্যে । সে সমস্ত দিক থেকে সোশ্যাল মিডিয়া ও আমাদেরকে নি-রাশ ক-রে না ।

সাধারণত বিয়ে হল এমন এক ধরনের অঙ্গীকার যেখানে সারা জীবনে প্রশ্ন জড়িয়ে থাকে । কাজেই নিজের পাশাপাশি যদি অন্যের বাড়ির ছেলে বা মেয়ের দায়িত্ব নিতে না সক্ষম হও তাহলে বিয়ে না করাই ভালো ।

প্রত্যেক বাবা মা ছেলে এবং মেয়ে বিয়ের পর যেন সুখে শান্তিতে সংসার করতে পারে আর তাই বিয়েটা দেখেশুনেই করা উচিত। এর পাশাপাশি যেহেতু বিবাহ যাবার পর বাড়ির মেয়েরা অন্য বাড়িতে চলে যায় তাই ম-ন খা-রাপ একটা থেকেই থাকে এবং সেই ম-ন খা-রা-পের জন্য কখনো কখনো দেখা যায় অর্থাৎ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় বিদায়ের সময় মেয়েদেরকে অ-ঝোরে কাঁ-দতে কিন্তু এ এক আ-জব ঘটনা ঘটলো।

সম্প্রতি ফেসবুক একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে যে বিদায়ের সময় নতুন বর এবং বউ দুজনেই অ-ঝোরে কাঁ-দছে । ব-উ কাঁ-দছে কারণ সে বাবার বাড়ি ছেড়ে শ্বশুরবাড়ি চলে যাবে । কিন্তু বর কি কারণে জন্য কাঁ-দছে তা ভেবে পাচ্ছেন না অনেকে । অনেকে আবার বলছেন যে হয়তো এতদিন পর তাদের ভালোবাসা সার্থক হয়েছে তার জন্যই আবেগে কেঁদে ফেলছে । তবে অনেকেই মন্তব্য করেছেন সে ভিডিওতে । ভিডিওটি ঘিরে এসেছে প্রচুর হা-স্য-কর মন্তব্য । তার পাশাপাশি এসেছে প্রচুর ভিউস ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *