Breaking News
Home / অন্যান্য / ‘আমি ঝাঁট দেবো,ঘর মুছবো, বাসন মাজবো, তবু পড়াশোনা করবো না’,- দিদিমনির কাছে কাতর আর্জি বাচ্চা ছেলের, ভাইরাল ভিডিও!

‘আমি ঝাঁট দেবো,ঘর মুছবো, বাসন মাজবো, তবু পড়াশোনা করবো না’,- দিদিমনির কাছে কাতর আর্জি বাচ্চা ছেলের, ভাইরাল ভিডিও!

Advertisement

শুধুমাত্র তারকা বা সেলিব্রিটি হয়ে উঠতে গেলে লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন এসবের দরকার হয় এমনটা কিন্তু নয় । বর্তমান যুগের বিকল্প পথ বেরিয়েছে । আমি কিসের কথা বলছি তা নিশ্চয়ই আপনারা বুঝতে পারছেন ।

Advertisement

আমি সোশ্যাল মিডিয়ার কথা বলছি। অর্থাৎ বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন একটি বিকল্প প্ল্যাটফর্ম এখানে যে কেউ রাতারাতি হতে পারে তারকা ।হয়ে উঠতে পারে সেলিব্রিটি আসতে পারে নাম যশ খ্যাতি পরিচিতি।

এমনটা যে বিরলতম টা নয় কারণ আমরা প্রায়ই দেখি কোনো না কোনো সাধারণ পরিবারের ছেলেমেয়েরা উঠে আছে খবরের শিরোনামে শুধুমাত্র সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে।

কখনো নাচ কখনো বা গান কখনো অন্য কোনো প্রতিভা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তুলে ধরে হয়ে উঠছে তারা তারকা। পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের শিক্ষামূলক ভিডিও পাওয়া যায় এই সোশ্যাল মিডিয়াতে । কিন্তু এবারের ভাইরাল হওয়া ভিডিও টি সম্পূর্ণ আলাদা । একটি ছোট্ট বাচ্চার ভিডিও সেটি ।

ছোটবেলা থেকে বাড়ির বাচ্চারা অজান্তেই এমন কিছু ধারনের প্রশ্ন করে থাকে যার উত্তর হয়তো আমরা দিতে পারি না সেই মুহূর্তে । নানান ধরনের খেলা হাসি এর মধ্যে দিয়ে যায় প্রত্যেকের শৈশব জীবন ।

যার ফলে মানসিক বিকাশ ঘটে সম্পূর্ণ রকম ভাবে । কিন্তু বর্তমান যুগের বাচ্চারা কোথাও জন্য একটু অ্যাডভান্স । ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি খুদে তার শিক্ষিকার উপর রাগ করেছে এবং অনবরত অ-ঝোরে কাঁ-দছে ।

পড়াশোনা ঠিকঠাক মতো করেনি বলে শিক্ষিকা তাকে বকাঝকা করেছে । আর তারপরেই সে বায়না ধরেছে যে সে আর পড়াশোনা করবে না বরং ঝা-ট দে-বে , ঘর মুছবে পা টিপে দেবে তাদের ।

তার সাথে সাথে সে বলেছে যে এসবের জন্য তার বাবা মা দায়ী । তাই এরকম বাবা-মা দরকার নেই ।ভিডিওটি ব্যা-পক পরি-মাণে হাসির পরিবেশ সৃষ্টি করেছে । তার পাশাপাশি সেই শিশুকে এতটা মিষ্টি লাগছিলো যা ভাষায় বর্ণনা করা যাবে না । ইতিমধ্যে ভিডিওটি দেখে ফেলেছে অনেকে ।

Advertisement

Check Also

একটি আ’স্ত পাখিকে গি’লে খা’চ্ছে দৈ;ত্যাকার মা’কড়সা, নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ভিডিও

Advertisement সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে আমরা প্র”তিনিয়ত কতরকমের অদ্ভুত ও অবাক করার মতো দৃ’শ্যের সা’ক্ষী থাকি। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *