উপরে আল্লাহ আছে। আমাকে ভিলেন বানাতে যাওয়া ২ জনের মধ্যে একজনের বিচার আল্লাহই করেছে : মাশরাফি বিন মুর্তজা

Sabbir Rahman 0

নিঃসন্দেহে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তজা। ক্যারিয়ারের শেষ মুহূর্তে চমক দেখিয়ে বাংলাদেশ ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব নেন মাশরাফি।

এরপর থেকেই ওয়ানডে ক্রিকেটের সাফল্য পেতে থাকে বাংলাদেশ। তার অধিনায়কত্বেই ২০১৫ বিশ্বকাপে দুর্দান্ত করেছিল বাংলাদেশ। এর পরের দেশের মাঠে শক্তিশালী পাকিস্তান, ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মত বড় দলগুলির বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়লাভ করে বাংলাদেশ।

কিন্তু হঠাৎ করেই ২০১৭ সালের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসর নেন মাশরাফি। এই ব্যাপারে কিছু দিন আগেই মুখ খুলেছেন তিনি। মূলত অভিমান করেই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসর নেন মাশরাফি।

তবে খেলতে থাকেন ওয়ানডে ক্রিকেট। কিন্তু ২০১৯ বিশ্বকাপে পারফরম্যান্স দেখাতে না পারায় নানা সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। শেষ মুহুর্তে গতবছর বিসিবির চাপে ওয়ানডে ক্রিকেটের দায়িত্ব ছেড়েছেন তিনি।

তবে এরই মধ্যে ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসর নিতে অবসর নিতে নানাপ্রকার চাপ দিয়েছে বিসিবি দেশের একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন মাশরাফি নিয়ে। এদের মধ্যে দুইজন ব্যক্তির দিকে সরাসরি দোষ দিয়েছে মাশরাফি।

তবে মাশরাফি বিন মুর্তজা কে নিয়ে যারা মিথ্যাচার করেছে তাদের বিচার আল্লাহ করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। এদের মধ্যে একজনের বিচার হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

“আমি বিশ্বাস করি সত্য এমন একটা জিনিস যা কখনও আঁটকায় রাখা যায় না এবং অন্যায়। উপরে আল্লাহ আছে না, বিচার করেই। বিচার কিন্তু একজনের হয়ে গেছে। অলরেডি দুর্নীতির দায়ে তার অনেক কিছু হয়ে গেছে।”

ওই দুই বোর্ড কর্মকর্তা দর্শকদের কাছে মাশরাফীকে খারাপ বানানোর জন্য ফোন দিয়েছিলেন বেশ কয়েকটি টিভি চ্যানেলে। তারা চেয়েছিলেন, মাশরাফীকে ভিলেন বানিয়ে দল থেকে বাদ দিতে।

“মিডিয়ায় ফোন করেছে উনারা। ইংল্যান্ডে বসে আমাদের বোর্ড ডিরেক্টরের দুই জনের তথ্য আমি জানি যে, কোনও কোনও চ্যানেলে উনারা ফোন দিয়ে বলছে, ‘আমাদের সামনে সুযোগ আসছে মাশরাফীকে নিয়ে নিউজ করে দেন, মানুষের সামনে মাশরাফীকে কালার করে দেন। ভিলেন বানায় দেন’।”v

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *