রক্তচো’ষা ছারপোকা থেকে বাঁ’চতে যা করবেন

ছারপোকা উ’ষ্ণ র’ক্তবিশিষ্ট অন্যান্য পোষকের র’ক্ত খেয়ে বেঁ’চে থাকে। বি’ছানা, বালিশ, মশারি, সোফা এদের পছন্দের আবাসস্থল।পুরোপুরি নিশাচর না হলেও ছারপোকা সাধারণত রাতেই অধিক সক্রিয় থাকে এবং মানুষের অগোচরে র’ক্ত চুষে নেয়।

মশার মতো ছোট্ট কামড় বসিয়ে এরা স্থান ত্যা’গ করে। তাই বলে যে দিনের বেলায় কা’মড়াবে না এমন না। চলুন জে’নে নেই এ বির’ক্তিকর ছারপোকার হাত থেকে বাঁচতে করণীয়-

১১৩ ডিগ্রি তাপমাত্রাতে ছারমোকা মা’রা যায়। ঘরে ছারপোকার আধিক্য বেশি হলে বি’ছানার চাদর, বালিশের কভার, কাঁথা ও ঘরের ছারপোকা আক্রা’ন্ত জায়গাগুলোর কাপড় বেশি তাপে সেদ্ধ করে ধুয়ে ফেলুন। ছারপোকা মরবেই!

ঘরের যে স্থানে ছারপোকার বাস সেখানে ল্যাভেন্ডার অয়েল স্প্রে করুন। দুই থেকে তিন দিন ল্যাভেন্ডার অয়েল স্প্রে করলে ছারপোকা আপনার ঘর ছে’ড়ে পালাবে।

ছারপোকা তাড়াতে ন্যাপথলিন খুবই কার্যকারী। পোকাটি তাড়াতে অ’ন্তত মাসে দু’বার ন্যাপথলিন গুঁড়ো করে বি’ছানাসহ উপদ্রবপ্রবণ স্থানে ছিটিয়ে দিয়ে রাখু’ন। ঘরে ছারপোকা হবে না।

ছারপোকা তাড়াতে মাঝে মধ্যে আসবাবপত্রে কেরোসিনের প্রলেপ দিন। এতে ছারপোকা সহজেই পালাবে। আসবাবপত্র ও লেপ-তোশক পরি’ষ্কার রাখার স’ঙ্গে স’ঙ্গে নিয়মিত রোদে দিন।

এতে করে ছারপোকার আ’ক্রমণ কমে যাওয়ার স’ঙ্গে স’ঙ্গে ই ছারপোকা থাকলে সেগুলো মা’রা যাবে। ছারপোকার হাত থেকে রেহাই পেতে আপনার বি’ছানা দেয়াল থেকে দূ’রে স্থাপন করুন।

শোয়ার আগে ও পরে বি’ছানা ভালো করে ঝেড়ে ফেলুন স’ঙ্গে পরি’ষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকুন। ছারপোকা তাড়াতে অ্যালকোহল ব্যবহার ক’রতে পারেন। ছারপোকাপ্রবণ জায়গায় সামান্য অ্যালকোহল স্প্রে করে করলে ছারপোকা মরে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.