স্বামীকে খুশি রাখতে যে কাজটি রোজ রাতে করতে হয় বাঙালি তনয়া রানী মুখার্জীকে, নিজেই প্রকাশ্যে বললেন অভিনেত্রী!

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির একজন নামকরা অভিনেত্রী হলেন রানী মুখার্জি(Rani Mukherjee)। বিগত বহু বছর ধরে বলিউডে রাজত্ব করেছেন এই বাঙালি তনয়া। ‘রাজা কি আয়েগি বারাত’ সিনেমার মাধ্যমে পা রেখেছিলেন অভিনয় জগতে।

তারপর থেকে আর তাকে পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। হাতে এসেছে একের পর এক সুপারহিট সিনেমা। নিপুণ অভিনয় দক্ষতা ছাড়াও, নিখুঁত সৌন্দর্য্যের অধিকারী তিনি। যদিও বাড়িতে থাকলে খুব সাধারণভাবেই থাকতে পছন্দ করেন।

তবে আপনি কি জানেন স্বামীর জন্য সেজে থাকতে হয় তাকে? হ্যাঁ। এমনটাই জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী। একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “আমার জীবন অন্যান্য অভিনেত্রীদের মতোন নয়।

তারকা হওয়ার জন্য নয় বরং আমাকে সাজতে হয় স্বামীর জন্য। বাড়িতে থাকলে আমি অন্যান্য মহিলাদের মতোই থাকি।” আসলে আদিত্য চোপড়াকে বিয়ের করার পর খানিকটা সংসারি হয়ে পড়েছেন তিনি।

কাজের চেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন সংসারকে। রানীর মতে বিয়ের পর প্রত্যেক স্বামীই চান, তার স্ত্রীকে যেন সবচেয়ে বেশি সুন্দর লাগে দেখতে। তাইতো প্রত্যেক স্ত্রীর এটি দায়িত্ব নিজেকে পরিপাটি করে রাখা।

কারণ, দিনের শেষে প্রত্যকে স্বামীই চান স্ত্রীকে দেখে খুশি হতে। উল্লেখযোগ্য, একসময় বলিউডের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক প্রাপ্ত অভিনেত্রী ছিলেন রানী। ‘কুচ কুচ হোতা হ্যায়’, ‘হ্যাল্লো ব্রাদার’,

‘কহি প্যায়ার না হো যায়ে’, ‘মরদানি’, ‘হাম তুম’এর মতো একাধিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। একইসাথে বাংলা সিনেমাতেও দেখা গিয়েছে এই অভিনেত্রীকে৷ ২০১৪ সালে তিনি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন আদিত্য চোপড়ার সাথে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.