হাতে বিরিয়ানির প্লেট, সম্পূর্ণ খালি গলায় অসাধারন গান গাইলেন রানু মণ্ডল

রানাঘাট স্টেশনের রানু মন্ডলকে মনে থাকবে না এমন ব্যক্তি খুঁজলে পাওয়া যাবে না। রানাঘাট স্টেশনের ভিক্ষুক ছিলেন তিনি। ভিক্ষা করে গান গেয়ে স্টেশনেই থাকতেন তিনি। রানাঘাট স্টেশন চত্বর ছিল তার বাসস্থান।

সেখান থেকে এক লাফে মুম্বাই। আর গোটা যাত্রায় তার সঙ্গে ছিলে অতীন্দ্র চক্রবর্তী নামের এক ভদ্রলোক। একদিন অতীন্দ্র বাবু রানাঘাট স্টেশনে রানু মন্ডলকে দেখতে পান।

তিনি রানু মন্ডলের গান রেকর্ড করেন তার মোবাইলে। আর সেই ভিডিও তিনি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করেন। এরপরই তোলপাড় হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়া। তার এই ভিডিও গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়ে।

এরপরই রানু মন্ডলের কপাল ফেরে। তিনি মুম্বাই যাওয়ার ডাক পান। এর পাশাপাশি নানান অনুষ্ঠানেও তাকে ডাকা হয়। কিন্তু অত্যাধিক অহংকার পতনের কারণ। স্টেশন থেকে হঠাৎ তিনি মুম্বাইয়ে গান গাওয়ার যে সুযোগ পান এতেই অহংকার বেড়ে যায় তার।

তিনি বলিউড গায়ক হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গেও গান গেয়েছেন। তবে এখন সেসব অতীত। বর্তমানে রানু মন্ডল আর চর্চার বিষয় নয়। তাকে নিয়ে আর কোনো মাতামাতি নেই। আগে তিনি কী করছেন, কী খাচ্ছেন সবকিছুই মিডিয়া অবগত থাকত।

তবে সেসব দিন অতীত হলেও রানু মন্ডল তার কন্ঠকে এখনও জিইয়ে রেখেছেন। সম্প্রতি তিনি ইউটিউব প্ল্যাটফর্মে ভাইরাল হওয়া গান ‘টুম্পা সোনা’ গেয়েছেন। আর এই গানটি তিনি গাওয়ার পর সেই রেকর্ডটি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করতেই ভাইরাল হয়ে যায়।

রানু মন্ডল নাকি আগের মতন ভিক্ষা করেই দিনযাপন করেন। এই খবর শোনার পর ইউটিউব চ্যানেলের দুই সদস্য তার সঙ্গে দেখা করতে যায় একটি জিনিস নিয়ে। রানু মন্ডল বিরিয়ানি খেতে ভালোবাসেন। তাই ওই দুই সদস্য বিরিয়ানি নিয়ে হাজির হয় তার কাছে। এরপর বিরিয়ানি খেতে খেতে রানু মন্ডল গান ধরেন। রানু মন্ডলের গাওয়া গানের ভিডিও প্রচুর ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.