অসাধারণ কায়দায় দুর্দান্ত নেচে তাক লাগাল গরীব পরিবারের ভাই বোনের জুটি, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমানে সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হয় নানা রকম ভিডিও। বিশেষ করে যেসব মানুষরা সুযোগের অভাবে তাদের প্রতি প্রদর্শন করার কোন অবসর পেতেন না তারা সোশ্যাল মিডিয়াকে তাদের প্রতিভা প্রদর্শনের মঞ্চ হিসেবে ব্যবহার করছে।

মিডিয়ার শক্তির সব থেকে বড় উদাহরণ হল রানু মন্ডল। ভবঘুরে হিসেবে ভিখারিদের সঙ্গে জীবনযাপন করতেন তিনি, এইসময় ভাইরাল হয়ে যায় তার গলায় গাওয়া একটি ভিডিও “এক পেয়ার কা নাগমা হে”।

ছাড়া ভারতবর্ষজুড়ে ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও, এর পরে আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। এরকম আরও উদাহরণ হলেন চাঁদমণি বিপাশা দাস প্রভৃতি। বর্তমানে এই কাজে এগিয়ে এসেছে বিভিন্ন ফেইসবুক পেইজ গুলিও।

তারা তাদের পেজের মাধ্যমে অনেক প্রতিভা কে নিয়ে এসেছে বিশ্বের সামনে। তবে শুধু ফেসবুক পেইজ নয়, বর্তমানে স্ন্যাপ ভিডিও, টিকটক প্রভৃতি নানা অ্যাপ এর মাধ্যমে মানুষ তার ভিডিও তৈরি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে,

যা হয়ে যায় তুমুল ভাইরাল। এই ভিডিও গুলোর মধ্যে যেমন শিক্ষামূলক নাচ-গান প্রভৃতির ভিডিও থাকে, তেমনি থাকে দারুণ মজার মজার ভিডিও। তবে এইসব স্বল্পদৈর্ঘ্যের ভিডিওগুলি তৈরীর ক্ষেত্রে মজার ভিডিও থাকার সংখ্যাটাই বেশি।

বর্তমানে সমস্ত মানুষ বিশেষ করে কিশোর-কিশোরীরা এবং যুবক-যুবতীরা এইসব অ্যাপ ইউজ করে নিজেদের ভিডিও তৈরি করে ভাইরাল হয়। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে অনেক অনামী শিল্পীও হচ্ছে ভাইরাল।

ফলে অনেক সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ করতে দেখছি আমরা। সত্যিকারের প্রতিভার দরকার হয়না কোন আড়ম্বর, কথাটির প্রমাণ করে দিয়েছে দুই আদিবাসী ভাই বোন। বর্তমানে সবচেয়ে ভাইরাল ক্যারেক্টার গুলির মধ্যে এরা দুজন হল অন্যতম।

এদের নেই কোনো আড়ম্বর, এর আগেও ভাইরাল একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছিল, দুই ভাইবোন সম্ভবত একটি ভোজপুরী গানে নাচ করছিল। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছিল, ভাই একটি খাটিয়ার উপর বসে আছে, এবং বোন ভাইয়ের কাছে এসে তাকে বলছে তার পেটে সমস্যা হচ্ছিল,

কিন্তু তার স্বামী তাকে ঠাণ্ডা কোকা কলা খাওয়ানয় তা ঠিক হয়ে গেছে। কিন্তু তাদের অসাধারণ নাচে মুগ্ধ হয়ে গেছেন দর্শকরা বারবার।প্রতিটি তালে তালে একদম সঠিক ভাবে নেচে মাতিয়ে দিয়েছেন তারা সোশ্যাল মিডিয়া।

সম্প্রতি একটি ভিডিওতে আবার তারা এলো ফিরে নতুন রূপে, ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি বলিউডি গানে দুই ভাইবোন নাচ করছে জমিয়ে। গানটি হল “দুনিয়া মে হাসি ওরভি হে”।

মেয়েটিকি প্রিন্টেড শাড়িএবং ছেলেটি নীল শার্ট ও কালো প্যান্ট পরে জমিয়ে নাচ করছে। কোনো তালিম ছাড়াই তাদের এত সুন্দর নাচ বারবার অবাক করেছে দর্শকদের। তাদের প্রতিভা সত্যিই ঈশ্বর প্রদত্ত।

ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে তাদের অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম চ্যানেল থেকে। হাজার হাজার মানুষ ভিডিওটি লাইক করেছেন। শেয়ার করে ভিডিওটি ভাইরাল করে দিয়েছেন সবাই। তাদের সরলতা ও আড়ম্বরতাহীন নাচ মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। আজকে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে আমরা এইসব অসাধারণ প্রতিভা গুলি দেখার সুযোগ পায়। ঝাল মিডিয়ার জন্য সারা বিশ্বে

এরকম প্রতিভা গুলি উন্মোচিত হচ্ছে সকলের সামনে। এইরকম প্রচেষ্টার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে জানায় কুর্নিশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন মানুষজনও এগিয়ে আসছেন এই প্রচেষ্টায় সাহায্য করতে, তাদের সম্মিলিত উদ্যোগে এই প্রতিভা গুলি বিশ্বের সামনে উন্মোচিত হচ্ছে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Dancer Sanatan (@dancer_sanatan)

Leave a Reply

Your email address will not be published.