হিন্দি গানের সাথে ডিজে পার্টিতে তরুনীর খোলামেলা উদ্যম নাচ, সাড়া জাগিয়েছে নেট দুনিয়ায়!

বর্তমান যুগ হচ্ছে সোসাল মিডিয়ার যুগ। বর্তমান যুগ আধুনিক যুগ। এই আধুনিক যুগে আপনি যদি নাচ, গান বা অন্য যেকোন প্রতিভার অধিকারী হন তাহলে কিন্তু আপনার ভাইরাল হতে বেশি সময় লাগবে না।

কারন আধুনিক এই যুগে সোসাল মিডিয়ার কল্যানে পুরো পৃথিবী এখন একটি গ্রামের মত হয়ে গেছে। ফলে আপনি ঘরের মধ্যে হোক আর যেখান থেকেই হোক আপনার প্রতিভা প্রকাশ করলে সেটি সারা বিশ্বেই জনপ্রিয় হয়ে উঠে।

বর্তমান যুগের প্রত্যেক ছেলে মেয়েই এই নেশার মোহে অন্ধ হয়ে যাচ্ছে। বলা বাহুল্য এই প্রজন্মের ছেলে মেয়েরা ভাইরাল হবার লোভে নিজেদের সকল প্রতিভাকে সোসাল মিডিয়ার সামনে আনছে।

কখনো নাচ, কখনো গান, কখনো আবার অন্য কোন প্রতিভাকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সামনে তুলে ধরে জনপ্রিয় হতে চাইছে। এখনকার প্রজন্মের ছেলে মেয়েদের দেখে অনেকে ঈর্ষা করছেন।

অনেকে বলেন, তাহলে কি বর্তমান প্রজন্মের ছেলে মেয়েদের প্রতিভা বেশি? আসলে তেমনটা কিন্তু নয়৷ প্রতিভা সব প্রজন্মের ছেলে মেয়েদের ছিল। কিন্তু আমাদের আগের প্রজন্মের লোকেরা সোসাল মিডিয়া পায়নি।

তখম এমনভাবে সোশ্যাল মিডিয়ার জনপ্রিয়তা ছিল না। তাই সে সময়ে প্রচারের অভাবে অগোচরে হারিয়ে গেছে অনেক প্রতিভাবান শিল্পী। তারা তখন আর সকলের সামনে উঠে এসে জনপ্রিয়তা লাভ করতে পারেন নি।

কিন্তু সেই সব দিন আর নেই। এখন সোশ্যাল মিডিয়ার যুগ। এই সোসাল মিডিয়া বর্তমান প্রজন্মের কাছে ধারালোতম হাতিয়ার হয়ে এসে দাঁড়িয়েছে। সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওর মাধ্যমে সেই চিত্রই যেন ফুটে উঠল।

ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, ভারতের কোনো একটি অনুষ্ঠানে এক যুবকের সাথে আরেক যুবতী ডান্স ফ্লোরে জনপ্রিয় হিন্দি গান “সাত সমুন্দর” এর সাথে কাপল নাচ নেচে চলেছে ।

আশেপাশে রয়েছে আরও অনেক অতিথি এবং মানুষজন । তারা ক্রমাগত হাত তালির মাধ্যমে এই জুটিকে উৎসাহিত করছে। মানুষের উৎসাহ পেয়ে তারা মনের আনন্দে যুগল বন্দী নাচে মাতোয়ারা করে চলেছে।

নাচের প্রতিটি স্টেপে ফুটিয়ে তুলেছে তাদের ভাবনাচিন্তা কে। এই ভিডিওতে এই কাপলের মধ্যে সামঞ্জস্য ছিল অসাধারণ। ফলে ভিডিওটি ইন্টারনেটে প্রকাশ হওয়ার পর বিপুল পরিমানে ভিউ এসেছে।

তাদের মাচ দেখে মন্ত্রমুগ্ধ হয়েছে নেট পাড়ার মানুষেরা। তবে ভিডিওটি কনের এবং কোথাকার সে সংক্রান্ত কোনো তথ্য এখনো পর্যন্ত জানা যায় নি । ইতিমধ্যে সে ভিডিওটি প্রচুর লোক শেয়ার করেছে। এসেছে প্রচুর মন্তব্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.