সাংবাদিক গ্রেপ্তার: সেসব গোপন নথি বাইরে গেলে দেশের ক্ষতি হত, বললেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে ‘নি;র্যাতন করা হয়নি’ দাবি করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, প্রথম আলোর ওই জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক টিকা আমদানি সং;ক্রান্ত এমন কিছু নথি ‘সরি;য়েছিলেন’ যেগুলো প্র;কাশ হলে ‘দে;শের ক্ষ;তি’ হতে পারত।

সরকারি ন;থি ‘চু;রির চে;ষ্টার’ অ;ভিযোগে রো;জিনা ইসলামকে গ্রে;প্তার এবং তার বি;রুদ্ধে ‘অ;ফিসিয়াল সি;ক্রেটস’ আইনে মামলার ঘ;টনায় বিভিন্ন মহলে সমা;লোচনার মধ্যে মঙ্গ;লবার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এমন ব;ক্তব্য এল।

রোজিনাকে গ্রে;প্তারের ঘটনা নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অবস্থান ব্যাখ্যা করতে এদিন বেলা ১১টায় সং;বাদ সম্মে;লন ডা;কা হয়েছিল। কিন্তু সচি;বালয়ে ক;র্মরত সাং;বাদিকদের সং;গঠন বাংলা;দেশ সে;ক্রেটারিয়েট রি;পোর্টার্স ফো;রাম (বিএসআরএফ) তা ব;র্জন করে।

পরে দু;পুরে আ;গারগাঁওয়ে এক;নেক স;ভা শে;ষে সাংবা;দিকদের বি;ভিন্ন প্র;শ্নের উ;ত্তর দেন স্বা;স্থ্যমন্ত্রী। জাহিদ মালিক বলেন, সচিবালয়ের কর্মকর্তাদের কাছে যে;টুকু তিনি শুনেছেন, তাতে স্বাস্থ্য স;চিবের পিএসের অনুপস্থিতি;তে সোম;বার দুপুরে তার কক্ষে ঢুকে ঢুকেছিলেন রোজিনা।

“ওখা;নে যে ডিউটিতে ছিল, সে দেখল যে একজন ব্যক্তি ওখানে ফাই;লের ছবি তুল;তেছে, ফাইল কিছু বের করে ব্যা;গে ঢু;কাইছে, শ;রীরেও ঢু;কাইছে। তখন সে চি;ল্লাচিল্লি করছে, আমাদের মহি;লা অফি;সাররা আসেছে,

এসে তা;রা ধ;রছে যে ‘আপনি কেন এই;সব কর;ছেন?’ তখন তার কাছ থে;কে ওই কা;গজ আর ফা;ইলগুলো নিছে। “এর মধ্যে পুলিশে খবর দিছে, পুলি;শ ক;র্মকর্তারা আ;সছে, তারা এটা টে;কওভার করছে। প্লা;স মো;বাইলটাও নিছে, মোবাইলেও অনেক ছবি পাইছে।”

সোমবার দুপু;রের পর স্বা;স্থ্য সেবা বি;ভাগের স;চিবের একা;ন্ত সচিব মো. সা;ইফুল ইসলাম ভূ;ঞার কক্ষে রো;জিনাকে প্রায় সাড়ে ৫ ঘণ্টা আট;কে রাখা হয়। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাকে শাহ;বাগ থা;নায় নিয়ে যায় ;পুলিশ। স্বা;স্থ্যসেবা বি;ভাগের একজন উপসচি;ব তার বিরু;দ্ধে মা;মলা করেন।

সেখা;নে ১৮৬০ সা;লের দণ্ড;বি;ধির ৩৭৯ ও ৪১১ ধারায় চু;রি এবং ১৯২৩ সালের ‘অফি;সিয়াল সি;ক্রেটস অ্যা;ক্টের’ ৩ ও ৫ ধারায় গুপ্ত;চরবৃত্তি ও রাষ্ট্রী;য় গো;পন ন;থি নি;জের দখ;লে রা;খার অ;ভিযোগ আ;না হয় এই সাং;বাদি;কের বিরু;দ্ধে।

এ;জাহারে বলা হয়েছে, রো;জিনা যেসব নথি;র ‘ছবি তু;লেছেন’, তার মধ্যে ‘টি;কা আম;দানি’ সং;ক্রান্ত কা;গজপত্রও ছিল।

সেই প্রস;ঙ্গ টে;নে স্বা;স্থ্যম;ন্ত্রী ব;লেন, “এই জি;নি;সটাও দুঃখ;জনক। কেননা এই; ফা;ইলগুলো ছিল টি;কা সং;ক্রা;ন্ত। আ;মরা যে রা;শিয়ার সাথে টিকা;র চু;ক্তি ক;রছি, চা;য়নার সা;থে টি;কার চু;ক্তি ক;রছি। সে;গুলো ন;ন ডি;সক্লো;জার আ;ইটেম। আ;মরা রাষ্ট্রীয়ভাবে বলেছি, আমরা এটা গো;পনে ;রা;খব, এগু;লো বলব না।

“তো সেই;গু;লো যদি বা;ইরে চ;লে যা;য়, তা;হলে রা;ষ্ট্রী;য়ভা;বে আমরা প্র;তি;শ্রুতি ভ;ঙ্গ কর;লাম, এবং আ;মরা টি;কা না;ও পে;তে পা;রি। এতে দে;শ ও দে;শের মা;নুষের জ;ন্য বি;রাট ক্ষ;তি হ;তে পা;রে। এ;গুলো সি;ক্রেট ড;কু;মেন্ট, বা;ইরে যা;ওয়া ঠি;ক হয়; নাই।”

রো;জিনা ইস;লামকে সচি;বালয়ে আট;কে রে;খে ‘শা;রীরি;কভা;বে হে;নস্তা’ ক;রা হ;য়েছে ব;লে অ;ভি;যোগ ক;রেছেন তার স্বামী মনিরুল ইসলাম মিঠু।

ওই অভিযোগ অস্বীকার করে জাহিদ মালেক সাংবাদিকদের বলেন, “যেটা শুন;লাম, তাকে অনেকক্ষণ আটকাইয়ে রাখছে। এটা পুলিশ ছিল… সে নিজে;ই শু;য়ে পড়ছে, বসে প;ড়ছে। তা;কে নিতে পা;রছিল না। শা;রীরি;কভা;বে কোনো নি;র্যা;তন বা আ;ঘা;ত ক;রা হয়;নি। এটা স;ঠিক নয়।”

রোজিনা ই;সলাম ওই অ;ফিস থেকে কোনো নথি সরানোর অভি;যোগ অ;স্বী;কার করেছেন। আর তার সহক;র্মীরা বলেছেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণা;লয়ের অ;নিয়ম-দু;র্নীতি নিয়ে প্র;তিবেদন করায় এখন ‘অন্যা;য়ের’ শি;কার হচ্ছেন এই সাং;বাদিক।

এ বি;ষয়ে এক প্র;শ্নের জ;বাবে স্বা;স্থ্যম;ন্ত্রী বলে;ন, “দু;র্নী;তির রি;পো;র্টিংয়ের জন্য তো আ;জ;কের ঘট;না না। ওটা ও;খা;নের ঘ;ট;নার, এর উ;প;রই পর;;বর্তী ঘ;ট;না ঘ;ট;তেছে।”

তি;নি বলেন, “সি;নি;য়র অ্যা;ডি;শনাল সে;ক্রে;টারি ও ডে;পুটি সে;ক্রে;টারি লে;ভে;লের দু;ইজন ছিল, প্রা;থমি;কভাবে তা;রাই ডি;ল ক;রছে। প;রে য;খন রা;ষ্ট্রীয় গো;পনী;য়তার বি;ষয় আ;সছে, তখ;ন তারা পু;লিশ ডে;কেছে।”

বর্ত;মা;ন সরকার যেখানে দু;র্নীতির ত;থ্য প্র;কাশের জন্য সাংবাদিকদের পুর;স্কৃত করার নিয়ম করেছে, সেখানে রোজিনার বিরুদ্ধে কেন ঔপনিবেশিক আমলের ‘অফিসিয়াল সিক্রেটস’ আইনে মামলা দেওয়া হল- সেই প্রশ্ন রেখেছিলেন একজন সাংবাদিক। উত্তরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি তো আ;ই;নজ্ঞ না। আইনের বিষয়ে কিছু বলব না।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.