হুবহু মানুষের মত করে কথা বলছে ছোট্ট টিয়া পাখি, মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও

বর্তমানে পৃথিবীর খবর জানার জন্য একমাত্র মাধ্যম হলো সোশ্যাল মিডিয়া।পৃথিবীর নানা অদ্ভুত আশ্চর্য ঘটনাবলী আমরা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে দেখতে পারি ও জানতে পারি।

এমনকি সোশ্যাল মিডিয়াকে কাজে লাগিয়ে অনেক মানুষ তার সুপ্ত প্রতিভা কে বিশ্বের সামনে আনার সুযোগ পান। আমাদের দেশের কোন কোন এমন অনেক প্রতিভা আছে যারা উপযুক্ত সুযোগের অভাবে সুপ্তই থেকে যান, কিন্তু আজকাল সোশ্যাল মিডিয়া সেই অসুবিধা দূর করেছে।

আজকাল সোশ্যাল কিশোর কিশোরী ও যুবক যুবতীদের প্রাধান্য বেশি। নাচ গান প্রভৃতি ভিডিওর সাথে সাথে নানারকম অদ্ভুত ঘটনাও ভাইরাল হতে দেখা যায়, যা দেখে আমরা সত্যিই অবাক হয়ে যাই।

পশুপাখিদের নিয়েও অনেক ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায় সোশাল মিডিয়াতে। পশুপাখিদের সমাজে এমন অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কার্যকলাপ দেখা যায়, যা সত্যিই বিচিত্র।

এমনকি কিছু কিছু পশুপাখির মজাদার আচরণ আমাদের সত্যি হাসিয়ে দেয়, আবার কিছু কার্যকলাপ সত্যিই শিক্ষামূলক। প্রতিটি পশুপাখির নিজস্ব অনুভূতি ও ভালোবাসা আছে,তারা মানুষের মতো তা হয়তো মুখে ব্যক্ত করতে পারে না, কিন্তু তাদের ভালোবাসা সত্যিই বিশ্বস্ত।

কিন্তু বর্তমানে মানুষের অত্যাচারে পশুপাখির বিভিন্ন প্রজাতি বিলুপ্ত হতে চলেছে। দিনের পর দিন বন কেটে ফেলা, পুকুর বুজিয়ে ফেলা, প্রভৃতি কারণে বহু পশু পাখি আজ বিলুপ্ত প্রায়। কিন্তু তাও এমন কিছু মানুষ পৃথিবীতে আজও আছেন যারা সত্যিই পশু-পাখিকে সংরক্ষণের চেষ্টা করেন।

আমরা প্রায়ই পশু পাখিদের নিয়ে নানারকম খেলা দেখাতে দেখি রাস্তায়। এমনকি নানারকম রিয়্যালিটি শোতেও প্রদর্শনের দৌড়ে পশুপাখিরা পিছিয়ে নেই মানুষের থেকে।

পশু পাখিদের সঠিকভাবে শিক্ষা দিলে তারা সব রকম কাজ করতে পারে। বিশেষ করে টিয়া পাখিরা নানারকম স্বর নকল করতে পারে, এর আগে ভাইরাল একটি ভিডিওতে দেখা গেছিল, একটি শোতে একটি কথা বলা টিয়া কে নিয়ে এক ভদ্রলোক নানা রকম খেলা দেখাচ্ছে।

সে সব রকম আওয়াজ করে দেখাচ্ছে। কখনো বা বিড়াল, কখনোবা পেঁচা, এমনকি সে মহাকাশের আওয়াজ বা পড়ে গেলে কি রকম আওয়াজ হয়

সেই সব নকল করে দেখিয়েছে অতি নিখুঁতভাবে। তার এই প্রতিভাতে মুগ্ধ হয়ে গেছিলেন দর্শক। বিশেষ করে যারা টিয়া পাখি পোষেন,

তাদের কাছে সে হয়ে যায় নিজের সন্তানের মতো। টিয়া পাখিটি ছোট থেকে তাদের কাছেই বড় হয় এবং কথা বলতে শেখে। সম্প্রতি ভাইরাল একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে,

এক পরিবারের কাছে পাবলো নামে একটি টিয়া পাখি নানা রকম কথা বলছে। কখনো সে তার মানুষ বাবাকে ডাকছে “মেরে পাপা” বলে,

বাবা ও তার কথায় উত্তর দিচ্ছেন “মেরে বেটা” বলে। এই দেখে তার মা তাকে মাম্মি বলে ডাকতে বললেই সে বলে, “মাম্মি তো খাবার খেতে গেছে”।

আবার সে দুষ্টুমি করে টেবিলে আছে দিলে মাম্মি তাকে নো নো বললে মাথা নেড়ে তার মানুষ মাকে “নো নো” বলতে থাকে।

এমনকি মানুষ মা তাকে দুষ্টুমি করে “গান্ধা বাচ্চা” বললে সে নিজেকে বারবার “গান্ধা বাচ্চা” বলতে থাকে। তার এই আধো আধো কথা মুগ্ধ করে দিয়েছে সকল দর্শক কে। এমনকি সে মাঝে মাঝে নিজের নামটাও পাবলো বলে উচ্চারণ করতে থাকে। তার কিউটনেস দেখে দর্শক হয়ে গেছেন মুগ্ধ।

টিয়া পাখিটি মন জয় করে নিয়েছে সকলের। ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে “পাবলো প্যারট” নামে একটি অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেল থেকে। হাজার হাজার মানুষ ভিডিওটি লাইক করেছেন। হাজার হাজার মানুষ কমেন্ট করে ভরিয়ে দিয়েছেন কমেন্ট বক্স। পাখিটির প্রতিভা সত্যিই দেখার মতো,

তাকে সুশিক্ষা দেওয়া হয়েছে বলেই সে আজ এত সুন্দর করে শিখতে পেরেছে। পাখিটি এবং তার মানুষ বাবাকে দেখেই বোঝা যাচ্ছে তারা পাখিটিকে নিজের সন্তান স্নেহে বড় করেছেন। তারা তিন জনেই একটি পরিবার। তাদের ভালোবাসা দেখে দর্শক হয়ে পড়েছেন আবেগমথিত। ভিডিওটি অত্যন্ত পছন্দ করেছেন সবাই।

তারা যেন এভাবেই সুখী থাকেন এই আশাই করি আমরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই এরকম নানা ধরনের ভিডিও ভাইরাল হয়।এরকম অদ্ভুত ভিডিওগুলি দেখে সত্যিই আমাদের লোম খাড়া হয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়া না থাকলে এইসব ঘটনাগুলির অস্তিত্ব আমরা কোনদিন জানতেই পারতাম না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.