বড় ক্রেন দিয়ে চাগিয়ে অ-সু-স্থ হাতিকে তোলা হচ্ছিলো লরিতে, অর্ধেক উঠিয়েই ঘ-ট’লো বি-প-ত্তি, ভাইরাল ভিডিও!

স্মার্টফোনের যুগে মানুষের অবসর কাটানোর প্রধান মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। সকাল থেকে শুরু করে রাত পর্যন্ত হাতে মোবাইল ফোন না নিলে যেন আমাদের চলেই না।

অনেক বিশেষজ্ঞরা তো বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়াকে গণমাধ্যমের থেকেও বেশি শ-ক্তি-শা-লী বলে মনে করছেন। কারণ হিসেবে বলা যায় সম্প্রতি মানুষ টেলিভিশন, রেডিও প্রভৃতির থেকেও বেশি নির্ভর হয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোর উপর।

আট থেকে আশি কেউই বাদ যাননি এই দল থেকে। সব বয়সের মানুষই এই সোশ্যাল মিডিয়ার আনন্দ উপভোগ করছেন। যদিও ব্যতিক্রম কিছু মানুষও রয়েছেন। এরপর আসা যাক সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ পাওয়া ভাইরাল ভিডিও গুলির কথায়।

এই ভাইরাল ভিডিওগুলির সংখ্যা ক্রমাগত সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীর সংখ্যার নিরিখে বেড়েই চলেছে। এইখানে নানান ধরনের ভিডিও বেশ চোখে পড়ার মতো। এর মধ্যে অনেকগুলো ভিডিও আমাদেরকে আশ্চর্য করে রেখে দেয়।

সম্প্রতি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল একটি ভিডিওতে দেখতে পাচ্ছি আচমকাই রাস্তার মধ্যে একটি হাতি অসুস্থ হয়ে পড়েছে। হাতিটি এতটাই অসুস্থ যে উঠে দাঁড়াতে অবধি পারছে না।

এমতাবস্থায় আর কোন উপায় না থাকায় বনদপ্তরের উদ্ধারকারীদের খবর দেওয়া হয়। উদ্ধারকারীরা এসে অনেক কষ্টে দড়ি দিয়ে বেঁধে হাতিটিকে ক্রেনে ওঠানোর চেষ্টা করে। কিন্তু সেখানেও ঘটে বি-প-ত্তি।

কারণ এত বিশাল আকৃতির হাতিটিকে এক ধাক্কায় ক্রেনে ওঠানো সম্ভব নয়। বেশ কয়েকবার অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় তাই উদ্ধারকারীদের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অনেক কষ্টে হাতিটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

হাতিটিকে এভাবে নিয়ে যেতে দেখে অত্যন্ত মনমরা হয়ে পড়েছিল তার সঙ্গে থাকা হাতি গুলি। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই অনেকেই ওই হাতিটির জন্য প্রার্থনা করেছেন।

কারণ এই অবলা নিরীহ পশুগুলি এভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে তারা কখনও জানাতেও পারবেনা। চাইলে এই ভাইরাল ভিডিওটি আপনারা দেখে আসতে পারেন। দর্শকদের সুবিধার্থে ভিডিওটি প্রতিবেদন এর সাথে সংযুক্ত করা হলো। রইলো ভিডিও।

Leave a Reply

Your email address will not be published.